মাদ্রাসা ছাত্রকে মারধরের অভিযোগ : দুই শিক্ষক আটক

জাতীয় সারাবাংলা

অনলাইন ডেস্ক : চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে এক মাদ্রাসা ছাত্রকে মারধরের অভিযোগে দুই শিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। ওই ছাত্রের বাবার দায়ের করা মামলায় আজ বৃহস্পতিবার সকালে মাজেদ হোসেন ও শাহীন হোসেন নামের দুই শিক্ষককে আটক করা হয়। নির্যাতনের শিকার ওই ছাত্রের নাম নাসিম। সে উপজেলার কাশিপুর দারুল উলুম কওমি মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র।

পুলিশ ও নির্যাতনের শিকার নাসিম জানায়, গতকাল বুধবার দুপুরে শিক্ষক মাজেদ হোসেন তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তাকে মারধোর করে শ্রেণিকক্ষে আটকে রাখেন। জোহরের নামাজের সময় তাকে ছেড়ে দিলে, সে মাদ্রাসা থেকে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় ওই মাদ্রাসার শিক্ষক শাহীন তাকে ফের ধরে নিয়ে এসে মারধোর করে শ্রেণিকক্ষে আটকে রাখেন। পরে এলাকাবাসী খবর পেয়ে সন্ধ্যায় তাকে উদ্ধার করে।

অভিযুক্ত শিক্ষক মাজেদ ও শাহীন বলেন, নাসিম অধিকাংশ সময় মাদ্রাসায় অনুপস্থিত থাকত। মাঝে মধ্যে মাদ্রাসা আসলেও ক্লাস না করে পালিয়ে যেতো। ভয় দেখানোর জন্য তাকে বেত্রাঘাত করা হয়েছে।

জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম ঘটনা সত্যতা স্বীকার করে জানান, নির্যাতনের শিকার ছাত্রের বাবা আলাউদ্দিন বাদী হয়ে গতকাল বুধবার রাতে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযুক্ত দুই শিক্ষককে আটক করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *