মামলায় হাজিরা দিতে গিয়ে যুবলীগ নেতা কারাগারে

সারাবাংলা

কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি : মাদারীপুরের কালকিনিতে একাধিক মামলার আসামি নবযোগদানকৃত উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. বাবুল আকন মাদারীপুর আদালতে হাজিরা দিতে গেলে বিচারক তার জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন। আসামি বাবুল আকন এর আগে উপজেলা বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদকের পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। সোমবার দুপুরে থানা পুলিশ সুত্রে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।
মামলা ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত বছর এসএসসি পরীক্ষা চলাকালীন সময় উপজেলার লক্ষীপুর ইউনাইটেড উচ্চ বিদ্যালয়ের পরীক্ষার্থী মো. তারেক মাহমুদ সরদার তার পরীক্ষা শেষে একা বাড়ি রওনা দেয়। পথিমধ্যে ওৎ পেতে থাকা আসামি বাবুল আকনের নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন মিলে পরীক্ষার্থী তারেক মাহমুদকে এলোপাথারিভাবে কুপিয়ে ফেলে রাখে। এঘটনায় ভুক্তভোগী পরীক্ষার্থীর নানা দানেশ সরদার বাদী হয়ে বাবুল আকনসহ ৭ জনকে আসামি করে কালকিনি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় গত রোববার দুপুরে বাবুল আকন জামিন আনার জন্য আদালতে হাজিরা দিতে যান। এসময় আদালতের বিচারক তার জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান।
উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার নিজামুল হক বলেন, বাবুল আকন একজন প্রতারক ও মিথ্যাবাদী। তার সঙ্গে যুবলীগের বর্তমানে কোন সম্পর্ক নেই। এ ব্যাপারে কালকিনি থানার ওসি মো. নাছিরউদ্দিন মৃধা বলেন, বাবুল আকন ছাত্র কোপানোর মামলায় জামিন আনতে গেলে আদালত তাকে জেলে পাঠিয়েছে। বাবুলের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *