টেকনাফে বাসচাপায় প্রাণ হারালেন অটোরিকশার ৩ যাত্রী

জাতীয় সারাবাংলা

ডেস্ক রিপোর্ট: টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কে বাসের ধাক্কায় বাবা-ছেলে ও এক শিশু নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন অটোচালকসহ পাঁচজন। বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার হোয়াইক্যং লম্বাবিল দক্ষিণ মাথা নাইট্টার টেক পয়েন্টে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীরা জানান, কক্সবাজার থেকে টেকনাফগামী যাত্রীবোঝাই পালকি পরিবহন বাস হ্নীলা মরিচ্যাঘোনা হতে কক্সবাজারগামী ওই অটোরিকশাকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই হ্নীলা মরিচ্যাঘোনার অটোযাত্রী ছালামত উল্লাহ (৫৫) ও তার ছেলে নজরুল (৩০) মারা যায়। পরে এই ঘটনার খবর পেয়ে হোয়াইক্যং পুলিশ ফাঁড়ির আইসি সর্ঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে। এবং চিকিৎসার জন্য তাদের পালংখালী গয়ালমারা এমএসএফ হাসপাতালে পাঠায়অ আর বাসটি জব্দ করে ফাঁড়িতে নিয়ে আসে। এতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় কামরুল নামে এক ব্যক্তির ৭/৮ মাসের এক মেয়ে শিশু মারা যায়।

এদিকে পরবর্তীতে গয়ালমারা হাসপাতাল থেকে হ্নীলা পানখালী শিয়াইল্যা মোরার নজরুলের স্ত্রী রোকেয়া ও শিশু মেয়ে, কামরুলের স্ত্রী নুর নাহার ও ১০/১১ বছরের মেয়ে এবং অটোচালক আলী আকবর পাড়ার আবুল মঞ্জুরের ছেলে নুরুল মোস্তফাসহ পাঁচজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। তাদের মধ্যে নিহত নজরুলের শিশু মেয়ে এবং কামরুলের কিশোরী মেয়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে।

এই বিষয়ে টেকনাফ মডেল থানার ওসি (তদন্ত) আব্দুল আলিম এ দুর্ঘটনার কথা জানান।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *