মেহজাবিনের এ কি হাল?

বিনোদন

ডেস্ক রিপের্ট: মফস্বল শহরের রইচ মাস্টারের যমজ মেয়ে কনক ও চাঁপা। দেখতে তারা একই রকম। তবে তাদের স্বভাব, পছন্দ ও আচরণ সম্পূর্ণ ভিন্ন। এমনকি পোশাক পরিচ্ছদও। কনক চুলে বব কাট দেয়, জিন্স ও টিশার্ট পরে, মার্শাল আর্ট শেখে, জিম করে, বাইসাইকেলে করে চলাফেরা করে, সেল্ফ ডিফেন্সের জন্য সঙ্গে সবসময় ব্লেড ও সেফটিপিন রাখে।

কনক সব সময় বাজে ছেলেদের নোংরা আচরণের প্রতিবাদ করে। প্রয়োজন হলে গায়ে হাত তুলতেও দ্বিধা করে না। তাকে কোনো বখাটে উত্ত্যক্ত তো দূরের কথা সামনে এসে কথা বলারও সাহস পায় না। সামাজের অনেকেই তার পোশাক-আশাক ও চলাফেরা নিয়ে নানা কথা বলে।

অন্যদিকে ভদ্র, শান্তশিষ্ট ও চাপা স্বভাবের একটি মেয়ে চাঁপা। ঠিক ওর নামের মতোই। চুল বেনি করে রাখে, থ্রিপিস পরিধান করে, মাথা নিচু করে চলাফেরা করে। সবকিছু মেনে ও মানিয়ে নিয়ে সবার কাছে ভালো মেয়ে হয়ে থাকার বিশাল একটা প্রবণতা সমসময় কাজ করে তার মধ্যে।

এই সুযোগ নিয়েই চেয়ারম্যানের বখাটে ছেলে আনোয়ার প্রতিনিয়ত তাকে বিরক্ত করে, জোর করে যেখানে-সেখানে পথ আগলে প্রেমের প্রস্তাব ও বাজে ইঙ্গিত দেয়, শরীরে হাত দেওয়ার চেষ্টা করে। একদিন কনক তার বাবাকে সঙ্গে নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দেওয়ার জন্য ঢাকায় গেলে চাঁপাকে একা পেয়ে আনোয়ার ও তার বন্ধুরা তুলে নিয়ে ধর্ষণ করে।

এ ঘটনায় থানায় মামলা হলেও আনোয়ারের চেয়ারম্যান বাবা ঘটনাকে অন্যভাবে ঘুরানোর জন্য এলাকায় সালিশের মাধ্যমে জনমত গঠন করে উল্টো চাঁপাকেই দোষারোপ করার চেষ্টা করে। পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করে মীমাংসা করে ধামাচাপা দেওয়ার জন্য। এরপর চেয়ারম্যান ও তার ছেলের কুকর্ম ফেসবুকের মাধ্যমে তুলে ধরে কনক।

এরপর কি হয়? সেটা দেখতে চোখ রাখতে হবে টিভির পর্দায়। কারণ এটি একটি নাটকের গল্প। যেখানে সুন্দর একটি সামাজিক বার্তা রয়েছে। নাটকটির নাম ‘কনক চাঁপা’। শামীম সিকদারের গল্পে নাটকটি পরিচালনা করেছেন সঞ্জয় সমদ্দার।

এখানে কনক ও চাঁপা এই দুই চরিত্রে অভিনয় করেছেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় তারকা মেহজাবিন চৌধুরী। নাটকটি নারী দিবস উপলক্ষে সোমবার রাত ৮টায় আরটিভিতে প্রচার হবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *