মেহেরপুরে মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে নিহত ২

সারাবাংলা

ডেস্ক রিপোর্ট : মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ধলা লক্ষী নারায়ণপুর গ্রামে সোমবার ( ৮ নভেম্বর ) সকালে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় দুইজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ২৫-৩০ জন।

নিহতরা হলেন জাহারুল ও সাহারুল আপন ভাই। দুইজনের বয়স ৪০ থেকে ৫০ এর মধ্যে। এই ঘটনায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আরও ৩০ জন আহত হয়েছেন। তাদের অনেককে কুষ্টিয়া, রাজশাহী এবং মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে এই ইউনিয়নের নির্বাচন। সকাল ১০টার দিকে আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী দুই প্রার্থী আতিয়ার ও টুটুল গ্রুপের লোকজন ভোট চাইতে রাস্তায় নামে। তখন ভোট চাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের লোকজনের মধ্যে কথাকাটাকাটি শুরু হলে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়।

এই সময় উভয় পক্ষ ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোঁটা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে ঘটনাস্থলেই দুইজন ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নিহত হয়। এই সময় আহত হয় দুই গ্রুপের ২৫-৩০ জন কর্মী সমর্থক।

বর্তমানে হতাহতদের স্বজনদের আহাজারিতে গাংনী হাসপাতাল চত্বর ভারী হয়ে উঠেছে। এই ঘটনায় ওই গ্রামে এখনো উত্তেজনা বিরাজ করছে।

মেহেরপুর পুলিশ সুপার রাফিউল ইসলাম বলেন, ভোট চাওয়াকে কেন্দ্র করে আকস্মিক সংঘর্ষের ঘটনায় দুইজন নিহত হয়েছে। গ্রামের বর্তমানে মেম্বার এবং নতুন মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ঘটে এই সংঘর্ষ। পরিস্থিতি শান্ত করতে গ্রামে বিপুল পরিমাণ পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ঘটনার সূত্রপাত এবং দোষীদের খুঁজে তাদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ মাঠে নেমেছে।

কাথুলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাজেদুর রহমান রানা জানান, তার ইউনিয়নের ধলা গ্রামে ভোট চাওয়াকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা। ওই গ্রামের ৭নং ওয়ার্ডের দুই মেম্বার প্রার্থীর কর্মীদের মধ্যে এই মারামারি ঘটনা। ঘটনার পর গ্রামে পুলিশ গিয়েছে। গ্রামে এখন শান্ত অবস্থা বিরাজ করছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *