মোরেলগঞ্জে হয়রানিমূলক মামলা প্রত্যাহার দাবিতে মানববন্ধন

সারাবাংলা

মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট) প্রতিনিধি:
বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে বহরবুনিয়া ইউনিয়নে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সোমবার রাতে নৌকা প্রতিকের সমর্থনের ৩ কর্মীকে পিটিয়ে আহত ও বাড়িঘর ভাংচুর করেছে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকরা। এঘটনায়  মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ইউনিয়নের কলেজ বাজারে জাকির ফরাজীর ষড়যন্ত্রমূলক দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে এলাকাবাসী মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন। আহতরা হলেন শাহ আলী হাওলাদার (৫০), হেমায়েত হাওলাদার(৩৫) ও চানমিয়া জোমাদ্দার (৪৪)। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান হাওলাদার, প্রাক্তণ প্রধান শিক্ষক গৌরাঙ্গ চন্দ্র মন্ডল, হেমায়েত উদ্দিন হাওলাদার, শাহ আলী হাওলাদার, রাসেল হাওলাদার সহ একাধিকরা বলেন, জাকির ফরাজীর নেতৃত্বে নৌকার কর্মীরা আহত হয়েছে। জাকির ফরাজীর স্ত্রীর দায়ের করা ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান। জাকির ফরাজীর লোকজন হুমকি দিয়ে আসছে। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি আমরা বাচতে চাই। এ ঘটনায় আহত শাহ আলী হাওলাদারের স্ত্রী মারুফা বেগম বাদি হয়ে জাকির ফরাজীকে প্রধান আসামি করে ১২ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-৪৩, তারিখ-৩০.৩.২০২১। জানা যায়, ৮টার দিকে বহরবুনিয়া গ্রামের নৌকা প্রতিকের সমর্থনকারী হেমায়েত হাওলাদার নির্বাচনী কার্যক্রম শেষ করে বাড়ি ফেরার পথিমধ্যে তালতলা এলাকায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে একই এলাকার জাকির ফরাজীর নেতৃত্বে ১০/১২ জনের স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থনের একটি সংঘবদ্ধ দল। ইউপি সদস্য হেমায়েত উদ্দিনের ওপর হামলা করে। এ সময় তার ডাকচিৎকারে তার বড় ভাই শাহ আলী স্থানীয়দের নিয়ে উদ্ধার করতে আসলে তাকেও ধারালো অস্ত্র দিয়ে গুরুত্বর জখম করে। ওই হামলার দিন জাকির ফরাজী পাকের ঘরে কে বা কাহার আগুন ধরিয়ে দেন। এ ঘটনায় জাকির ফরাজীর স্ত্রী মোসাঃ তানজিলা বেগম বাদি হয়ে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইউপি সদস্য মো. মাসুদ বিল্লাহ মাসুদকে প্রধান আসামি করে ১১ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। যার মামলা নং-৪৪, তারিখ-৩১.৩.২০২১। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ইউপি সদস্য’র দুই প্রার্থীর সমর্থনের মধ্যে সংর্ঘসের রুপ নেয়। অপর ইউপি সদস্য প্রার্থী মাষ্টার হারুন অর রশীদ হাওলাদারের বাড়িতে ঢুকে ভাংচুর চালায়। থানা পুলিশ ওই রাতেই ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

এ সম্পর্কে ইউপি চেয়ারম্যান নৌকার মনোনীত প্রাথী রিপন তালুকদার বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থীর লোকজন আমার ৩ কর্মীকে পিটিয়ে আহত করেছে। তারা এলাকায় নৈরাজ্য সৃষ্টি করে সাধারণ ভোটারদের মাঝে আতংক সৃষ্টি করছে। জাকির ফরাজীর নেতৃত্বে হামলা হয়। আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশিল, পুলিশ প্রসাসন তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন। এ ব্যাপারে জাকির ফরাজী বলেন, আমরা আওয়ামী লীগ করি দলের বাইরে নই, ঘটনাটি সুষ্ঠু তদন্ত পূর্বক প্রশাসনের প্রতি দাবি জানান।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *