উন্নয়নে পাল্টে গেছে মোড়েলগঞ্জের হোগলাবুনিয়া ইউনিয়নের দৃশ্যপট

সারাবাংলা

এম. পলাশ শরীফ, মোড়েলগঞ্জ থেকে : বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জের হোগলাবুনিয়া ইউনিয়নে উন্নয়নে পাল্টে গেছে দৃশ্যপট। এলাকার মানুষের দীর্ঘদিনের দাবী বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে। সরকারিভাবে সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের উদ্যোগে ছোলমবাড়িয়া থেকে ঘোষেরহাট পর্যন্ত প্রায় দেড়শ’ কোটি টাকার বরাদ্ধে ১১ কিলোমিটার কার্পেটিং রাস্তার কাজ চলমান রয়েছে।

সরেজমিনে জানা গেছে, পানগুছি নদীর তীরবর্তী ঘেষা এ হোগলাবুনিয়া ইউনিয়নটি। ইউনিয়নটিতে রয়েছে ইতিহাস ঐতিয্য ১৯৭১ সালে স্বাধীনতার যুদ্ধে মোড়েলগঞ্জ উপজেলার প্রথম মুক্তিযোদ্ধাদের সংঘটিত করা হয়েছিলো এ খান থেকে। গত ৫ বছরে আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে আমুল পরিবর্তন হয়েছে গ্রামীন এ জনপদে। প্রধানমন্ত্রীর পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রতিটি গ্রাম হবে শহর এটি বাস্তবায়নে ইউনিয়নের ১০টি গ্রামে শতভাগ বিদুৎতায়নের আওতায় ও ৩৭ কিলোমিটারে ইট সোলিং ১০টি রাস্তা, ২ কিলোমিটার কার্পেটিং রাস্তা, আরসিসি আধা কিলোমিটার, ১৫ কিলোমিটার ১০টি মাটির রাস্তা। শিক্ষা একাডেমি প্রকল্পের ৪ তলা ভবনের নির্মাণ কাজ চলমান রয়েছে।

এ ছাড়াও ৩ কিলোমিটার আরসিসি ১টি রাস্তা ও ছোট বড় ১৯ টি কালভার্ড ব্রীজ নির্মাণ ও ৮টি কাঠের পুল নির্মাণ করা হয়েছে। জমি আছে ঘর নেই এ প্রকল্পের আওতায় ৩৭টি ঘর পেয়েছে গৃহহীন মানুষেরা। খাবার পানির জন্য ৩টি পুকুর ও ৬ কিলোমিটার কাটা খাল পুর্নঃখনন, সংস্কার করা হয় ২০টি মসজিদ। ৯টি ওয়ার্ডেই বসানো হয়েছে ৫০টি সড়ক বাতি। সরকারি সামাজিক বেষ্টনি প্রকল্পের সুবিধার আওতায় রয়েছে ২ হাজার মানুষ। সব মিলিয়ে ইউনিয়নে প্রায় আড়াইশ’ কোটি টাকার উন্নয়নমুখী কাজ হয়েছে বলে জানা যায়।

এ ইউনিয়নে জনসংখ্যা রয়েছে প্রায় ৩০ হাজার, ভোটার রয়েছে ১৮ হাজার, শিক্ষা হার ৬৫%, মানুষের আয়ের উৎস কৃষি।
এ বিষয়ে হোগলাবুনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা মো.আকরামুজ্জামান বলেন, ২০১৬ সালে নির্বাচিত হয়ে সাধারণ মানুষকে সাথে নিয়ে এলাকার উন্নয়নের পাল্টে দেওয়া হয়েছে চিত্র। যা বিগতে ৩৭ বছরে এলাকায় উন্নয়নে এরকম কাজ হয়নি। বর্তমান সরকারের উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডের কারনে সাধারণ মানুষ দলীয় প্রতিকে ভোট দিবেন। তিনি দলের মনোনয়ন পাবেন বলে আশাবাদি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *