শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৩:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
সালথায় বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুনামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত পাইকগাছায় লবনপানি নিয়ত্রণ ও পরিবেশ সুরক্ষা আন্দোলনের আয়োজনে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত নবগঠিত নগর বিএনপির কমিটিকে স্বাগত জানিয়ে চট্টগ্রামে আনন্দ মিছিল পুলিশ সুপারের সাথে নোয়াখালী জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সৌজন্য সাক্ষাৎ দশমিনায় কৃষি ও প্রযুক্তি মেলার সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ শ্রেষ্ঠ স্কাউট শিক্ষক শারমিন ফাতেমাকে এমটিভি পরিবারের অভিনন্দন মাদকমুক্ত সমাজ গড়তে যুবকদের খেলাধুলায় এগিয়ে আসতে হবে: লাবু চৌধুরী এমপি ফেনীতে ২ কোটি ৩৬ লাখ টাকার ভারতীয় শাড়ি ও লেহেঙ্গা জব্দ নগরকান্দার যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীদের সাথে এমপি লাবু চৌধুরীর মতবিনিময় ভোগান্তির আরেক নাম পাইকগাছার সোলাদানা খেয়াঘাটঃ যুগযুগ ধরে অবহেলিত! নান্দাইলে পুলিশের অভিযানে মাদক ব্যবসায়ী ও জুয়ারোসহ গ্রেফতার-১৫ চিনি বেশি খাচ্ছেন, এই সব লক্ষণই কিন্তু বলে দেবে মাদক নিয়ন্ত্রণে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তাজুন্নেছা আহমেদের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক তুরাগে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে তিন ডাকাত গ্রেপ্তার জনগণের কষ্টার্জিত অর্থ যথাযথভাবে ব্যয় করার ক্ষেত্রে সকলের সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত – পরিকল্পনামন্ত্রী সালথায় পাট উৎপাদনে খরচের তুলনায় বাজারে দাম কম: দুশ্চিন্তায় চাষিরা কুড়িগ্রামের আরিফুর রহমান সুমন ওয়ার্ল্ড গেমস-২০২৫ র‌্যাংকিং ৮ম এ কাপ্তাই জাতীয় উদ্যানে বার্মিজ পাইথন প্রজাতির অজগর সাপ অবমুক্ত পাইকগাছা মৎস্য আড়ৎদারি সমিতির সাথে সংসদ সদস্য রশীদুজ্জামানের মতবিনিময় দশমিনায় কৃষি মেলার শুভ উদ্বোধন ও অনুদানের চেক বিতরণ সম্পন্ন নান্দাইলে ৩৮৯ বোতল ফেন্সিডিল সহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ফরিদপুর জেলার শ্রেষ্ঠ ওসি সালথা থানার ফায়েজুর রহমান কাপ্তাই অনূর্ধ্ব (১৭) ফুটবল খেলায় বালক বিভাগে কাপ্তাই ও বালিকা বিভাগে রাইখালী ইউনিয়ন চ্যাম্পিয়ন পাইকগাছায় মৎস্য আড়ৎ আধুনিকায়নে বরাদ্দ প্রায় ৪ কোটি টাকা কোটা ও পেনশন আন্দোলন সতর্কভাবে পর্যবেক্ষণ করছি : কাদের এইচএসসির আইসিটি পরীক্ষায় বহিষ্কার ৭৬, অনুপস্থিত ১২ হাজার ৮২৯ বিয়েশাদি নিয়ে ভাবছি না, কোনো রিলেশনেও নেই : দীঘি ‘১০০ ভাগ ফিট না থাকলেও মেসি খেলবে’

যুদ্ধবিরতি বিলম্বের জন্য হামাসকে দোষারোপ বাইডেনের

অনলাইন ডেস্ক :
শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০২৪, ১:০০ অপরাহ্ন

ইসরায়েলি হেলিকপ্টার বৃহস্পতিবার রাফাতে হামলা চালিয়েছে।
বাসিন্দারা বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আরেকটি যুদ্ধবিরতি চুক্তিতে হামাসকে ‘সবচেয়ে বড় বাধা’ উল্লেখ করার পরপরই হামাস যোদ্ধারা দক্ষিণ গাজান শহরের রাস্তায় দখলদার বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই শুরু করছে।
ইসরায়েলের উত্তর সীমান্তেও উত্তেজনা বেড়েই চলেছে। হামাসের মিত্র হিজবুল্লাহর সামরিক অবস্থানগুলো লক্ষ্য করে আরও আক্রমণ এবং লেবাননে ইসরায়েলি হামলায় একজন বেসামরিক নাগরিক নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
ফিলিস্তিনি বেসামরিক নাগরিকদের ভাগ্য নিয়ে ব্যাপক শঙ্কা এবং মে মাসের শেষের দিকে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতের রায় সত্ত্বেও ইসরায়েলি বাহিনী ওই মাসেই  রাফাহতে স্থল অভিযান শুরু করে।
বৃহস্পতিবার রাফাহ শহরের পশ্চিমাঞ্চলে ব্যাপক আগুন লেগেছে বলে বাসিন্দারা জানিয়েছেন।
বাসিন্দাদের একজন এএফপি’কে বলেছেন, ‘ইসরায়েলি কামান এবং যুদ্ধজাহাজ ছাড়াও যুদ্ধবিমান, অ্যাপাচি (হেলিকপ্টার) এবং কোয়াডকপ্টার থেকে খুব তীব্র গোলাবর্ষণ হচ্ছিল। যার সবগুলোই রাফাহ শহরের পশ্চিমে আঘাত করছিল।’
হামাস বলেছে, তাদের যোদ্ধারা মিশরের সাথে অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার সীমান্তের কাছে শহরের রাস্তায় ইসরায়েলি সেনাদের সাথে লড়াই করছে।
ইতালিতে একটি জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনে,বাইডেন গাজা যুদ্ধবিরতি এবং জিম্মি মুক্তির বিষয়ে একটি চুক্তিতে হামাসকে ‘এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় বাধা’ বলে অভিহিত করেছেন।
সাংবাদিকদের তিনি বলেন,‘আমি একটি পরিকল্পনা তৈরি করেছি যা জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ, জি-৭ এবং ইসরায়েলিদের দ্বারা অনুমোদিত হয়েছে এবং এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বড় বাধা হল হামাস এতে স্বাক্ষর করতে অস্বীকার করেছে যদিও তারা অনুরূপ কিছু জমা দিয়েছে।’
তিনি বলেছিলেন, ‘এটি ফলপ্রসূ হয় কি-না তা দেখার বিষয়’।
হামাস নিয়ন্ত্রিত গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানায়, ইসরায়েলের প্রতিশোধমূলক সামরিক অভিযানে গাজায় কমপক্ষে ৩৭,২৩২ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। যাদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু।
ইসরায়েল যখন রাফাতে স্থল অভিযান শুরু করে তখন একটি যুদ্ধবিরতিতে পৌঁছানোর প্রচেষ্টা স্থগিত হয়ে যায়। কিন্তু মে মাসের শেষের দিকে বাইডেন একটি চুক্তি সুরক্ষিত করার জন্য একটি নতুন প্রচেষ্টা শুরু করেছিলেন।
সোমবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ এই পরিকল্পনাকে সমর্থন করে একটি মার্কিন খসড়া প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে এবং বৃহস্পতিবার জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শোলৎস বলেছেন, জি-৭ নেতারা ‘প্রয়োজনীয় সম্মতি দেওয়ার জন্য বিশেষ করে হামাসকে আহ্বান জানিয়েছেন’।
মঙ্গলবার গভীর রাতে মধ্যস্থতাকারী কাতার ও মিশরকে জবাব দিয়েছে হামাস। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন বলেছেন, হামাসের প্রস্তাবিত কিছু সংশোধনী ‘কাজযোগ্য এবং কিছু নয়’। তিনি এই সপ্তাহে মধ্যপ্রাচ্য সফরে ছিলেন। হামাসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ওসামা হামদান বলেছেন, হামাস ‘একটি স্থায়ী যুদ্ধবিরতি এবং গাজা থেকে ইসরায়েলি সৈন্যদের সম্পূর্ণ প্রত্যাহার’ চেয়েছে। এই দাবিগুলো ইসরায়েল বারবার প্রত্যাখ্যান করেছে।
যুদ্ধ গাজায় ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞের সৃষ্টি করেছে, হাসপাতালগুলো পরিষেবার বাইরে এবং জাতিসংঘের দুর্ভিক্ষের সতর্কতা জারি রয়েছে।
জাতিসংঘের একটি তদন্ত বুধবার উপসংহারে পৌঁছেছে যে যুদ্ধের সময়ে ইসরায়েল মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধ করেছে।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, গাজায় তীব্র অপুষ্টির জন্য পাঁচ বছরের কম বয়সী ৮ হাজার শিশুর চিকিৎসা করা হয়েছে।
যেহেতু বিশ্বব্যাপী মুসলমানরা রবিবার থেকে ঈদুল আযহা উদযাপনের প্রস্ততি নিচ্ছেন, বাস্তুচ্যুত গাজান উম্মে থায়ের নাসির বলেন, এই অনুষ্ঠানের জন্য ‘আমাদের প্রস্ততির কিছু নেই’।
উত্তর গাজার বেইত লাহিয়াতে তিনি বলেন,‘শিশুরা তাদের বাবাকে জামাকাপড় কিনতে বলে’ কিন্তু মৌলিক পণ্য থেকে খেলনা পর্যন্ত যেকোনো কিছুর দাম সাধ্যের বাইরে।
তিনি বলেন, ‘তাদের বাবা এগুলো কোথা থেকে কিনবেন? তিনি আট মাস ধরে বেকার এবং এক তাঁবু থেকে অন্য তাঁবুতে চলে যাচ্ছেন, তাদের খারার যোগানোই অসম্ভব হয়ে পড়েছে।’
অন্য এক বাস্তুচ্যুত গাজান ফাদি নাসির এএফপি’কে বলেছেন, ‘সাধারণ সময়ে’ বাড়ি এবং রাস্তাগুলো উৎসবের জন্য সজ্জিত করা হয়। তবে ‘আজ আমাদের আর একটি বাড়িও নেই এবং সাজানোর কিছু নেই’।
তিনি আরও বলেন, ঈদের কোনো অনুভূতি নেই।
গাজা যুদ্ধের পতন নিয়মিতভাবে ইসরায়েল-লেবানন সীমান্তে অনুভূত হয়, যেখানে মারাত্মক আন্তঃসীমান্ত গোলা বিনিময় বৃদ্ধি পেয়েছে।
হিজবুল্লাহ বলেছে, তারা ইসরায়েলের হামলায় একজন কমান্ডার নিহত হওয়ার প্রতিশোধ নিতে রকেট এবং ড্রোন দিয়ে ইসরায়েলে সামরিক লক্ষ্যবস্তুতে আক্রমণ করেছে।
ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী বলেছে, বেশিরভাগ উৎক্ষেপণ বাধা দেওয়া হয়েছে এবং অন্যরা আগুন জ্বালিয়েছে।
পরে, লেবাননের ন্যাশনাল নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, ইসরায়েলি ‘যুদ্ধবিমানগুলো দেশটির দক্ষিণে একটি বাড়ি লক্ষ্য করে হামলা চালায়’, এতে একজন বেসামরিক নাগরিক নিহত এবং সাতজন আহত হয়।
ইরাকের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফুয়াদ হুসেইন বলেছেন,সম্ভাব্য‘যুদ্ধের সম্প্রসারণ শুধুমাত্র লেবাননের জন্য নয়,সমগ্র অঞ্চলের জন্যই একটি বিপদ’।


এই বিভাগের আরো খবর