যুবলীগ নেতাসহ ৪জনকে কুপিয়ে জখম

সারাবাংলা

দশমিনা (পটুয়াখাখালী) প্রতিনিধি:
পটুয়াখাখালীর দশমিনা উপজেলার আলীপুরভ ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের নির্বাচনী অফিসে আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ছাড়া বহরমপুর ইউনিয়নে এক যুবলীগ নেতাসহ নৌকা সমর্থিত চার জনকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব ঘটনায় দশমিনা থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযোগ ও স্থানীয় বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, ২ নম্বর আলীপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী ও উপজেলা যুবলীগের সহ সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমান মিজানের চাদপুরা বাজারের নির্বাচনী অফিসে শনিবার গভীর রাতে আগুন দিয়েছে দূর্বিত্তরা। আলীপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হারুন সরদার জানান, আওয়ামীলীগ থেকে বহিস্কৃত আনারস প্রতিকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ আতিকুর রহমান সাগরের কর্মী সমর্থকেরা তাদের অফিসে আগুর লাগিয়ে অর্ধ শতাধিক প্লাষ্টিক চেয়ার ও পোষ্টর ব্যনার ভষ্মীভূত করেছে। এঘটনায় নৌকার প্রার্থি মিজান দশমিনা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। নির্বাচনী অফিসে আগুনের ঘটনায় পটুয়াখালীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মাহফুজুর রহমান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। অভিযুক্ত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থি আতিকুর রহমান সাগর জানান, তার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগ করা হয়েছে। এদিকে ৫ নম্বর বহরমপুর ইউনিয়নে নৌকা প্রতিকের সমর্থক যুবলীগ নেতাসহ চার কর্মীকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেছেন আওয়ামীলীগ থেকে বহিস্কৃত আনারস প্রতিকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ মাইনুল ইসলাম বাচ্চুর সমর্থকেরা। শনিবার রাতে আমতলা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হচ্ছেন বহরমপুর ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি মামুন মৃধা (৩০) সাবেক সেনা সদস্য মশিউর রহমান চান (৪৩) আবু খলিফা (৩৫) ও মাসুদ মৃধা (৪০) এসময় আমতলা বাজারে নৌকার নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করা হয় এবং বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি কুপিয়ে ছিড়ে ফেলা হয়েছে। আহতদের দশমিনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এঘটনায় নৌকা প্রতিকের প্রার্থী মোঃ আনোয়ার হোসেন মৃধা দশমিনা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। অভিযুক্ত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. মাইনুল ইসলাম বাচ্চু জানান, তার ও সমর্থকদের বিরুদ্ধে মিথ্য ও বানোয়াট অভিযোগ করা হয়েছে। উল্টো তার তিনটি নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করেছে নৌকা সমর্থকরা।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *