রংপুরে বাংলার চোখের ১৩তম বর্ষপূর্তি পালন

সারাবাংলা

রংপুর ব্যুরো
বাংলার চোখ’র দিনব্যাপি বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে পালিত হয়েছে ১৩ তম বর্ষপূর্তি অনুষ্ঠান। সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব তানবীর হোসেন আশরাফী’র সভাপতিত্বে কেক কাটা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রংপুর সিটি কর্পেরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রংপুর মহানগর আওয়ামিলীগের সভাপতি ও পরিকল্পিত নগর উন্নয়ন নাগরিক কমিটির সভাপতি সফিউর রহমান সফি, রংপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো: মোশারফ হোসেন, বিশিষ্ট সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অধ্যাপক শাহ আলম হোসেন, বাংলার চোখের উপদেষ্টা রংপুর কমিউনিটি মেডিকেল কলেজের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক আশরাফুল আলম আল-আমিন, বাংলার চোখের উপদেষ্টা ও মহুয়া বেকারীর স্বত্বাধিকারী আলহাজ্ব নুরুল হক মুন্না। এছাড়া বক্তব্য রাখেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অধ্যাপক আজিজুল ইসলাম, নাজমা জামান এনটিভি প্রতিনিধি মইনুল ইসলাম, দেলওয়ার হোসেন রংপুরী, নজরুল পাঠাগারের সাধারণ সম্পাদক রশিদুল সুলতান বাবলু। উক্ত অনুষ্ঠান উদযাপন কমিটির দায়িত্ব পালন করেন বাংলার চোখ’র অন্যতম সদস্য দুলাল মিয়া, সদস্য সচিব ওমর ফারুক। সফল উপস্থাপক ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে বিশেষ অবদানের জন্য সম্মাননা স্বারক প্রদান করা হয় বাংলার চোখ’র অন্যতম সদস্য মাহমুদুন্নবী বাবুল ও নাটকে বিশেষ অবদান রাখার জন্য সম্মাননা স্বারক প্রদান করা হয় ডা: শাহাবুল ইসলাম সাগরকে। বাংলার চোখের মহানগর সহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কমিটি গঠন করা হয়। মহানগর কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব আবু জাফর লিটন ও সাধারণ সম্পাদক মো: ওমর ফারুক। কারমাইকেল কলেজ বাংলার চোখের সভাপতি রেজওয়ান আহমেদ সৌধ, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান রংপুর সরকারি কলেজের সভাপতি শুভ আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মিন্টু মিয়। বেগম রোকেয়া ইউনিভার্সিটির সভাপতি আল আমিন বাপ্পী, সাধারণ সম্পাদক সাব্বির হোসেন আদিল সাংগাকা সভাপতি আহসানুল কাদির খাঁন মিলন, সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী রতন। বাংলার চোখ’র সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দফতর সম্পাদক মো: সিরাজুল ইসলাম ইরান, মো: সুজন মিয়া, মো: মিন্টু মিয়া, মো: আবুল কালাম আজাদ, জান্নাতুল ফেরদৌস অশ্রু, সুমন, আবুবকর সিদ্দিক, আঙ্গুর, আরিফ হোসেন, আকাশ, নয়ন, প্রত্যয়ী মিজান, আহ্নাফ তাহ্মিদ আবিদ, রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ, শুভ, অনুষ্ঠানের সম্মানীত সভাপতি তানবীর হোসেন আশরাফী ও বক্তাগন ধর্ষণ, মাদক নির্মূল, সুসমাজ ও পরিকল্পিত নগরী গড়ে তুলতে বাংলার চোখ’র তরুন প্রজন্মকে অবদান রাখার জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে আরও পরিকল্পিত কাজ করে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *