রওন্ডা ফ্লেমিং আর নেই

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক : গত বুধবার ক্যালিফোর্নিয়ার সান্টা মনিকায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন হলিউডের কুইন অব টেকনিকালার’ উপাধি প্রাপ্ত হলিউড নাইকা রওন্ডা ফ্লেমিং। রওন্ডার পারিবারিক নাম মেরিলিন লুইস। তিনি স্কুলে পড়াকালে বিখ্যাত ট্যালেন্ট এজেন্ট হেনরি উইলসনের চোখে পড়েন। তিনি এই অভিনেত্রীর নামই বদলে দেন। এরপর বিখ্যাত নির্মাতা ডেভিড ও সেলৎসনিকের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন। তবে প্রথম কোন বড় চরিত্র পান ‘স্পেলবাউন্ড’ সিনেমায়। সেখানে যৌন বিকারগ্রস্ত নারীর ভূমিকায় অভিনয় করেন রওন্ডা ফ্লেমিং। ব্যক্তিগত জীবনে ছয়বার বিয়ে করেছেন ফ্লেমিং।

৭ বছর বয়সী এ অভিনেত্রী ৪০টির বেশি সিনেমায় অভিনয় করেন। এর মধ্যে আলফ্রেড হিচককের ‘স্পেলবাউন্ড’, জ্যাক টুরনুর ‘আউট অব দ্য পাস্ট’ ও রবার্ট সিওডমাকের ‘দ্য স্পাইরাল স্টিয়ারকেস’ আজও স্মরণীয়। হলিউডে ১৯৪০ ও ৫০ এর দশকে ‘কুইন অব টেকনিকালার’ উপাধি পেয়েছিলেন রওন্ডা ফ্লেমিং। ‘আউট অব দ্য পাস্ট’ ও ‘স্পেলবাউন্ড’-এর মতো ক্ল্যাসিক সিনেমায় তিনি দুর্দান্ত অভিনয় করেন।

এ ছাড়া অভিনয় করেছেন হোয়াইল দ্য সিটি স্লিপস, পনি এক্সপ্রেস, দ্য বিগ সার্কাস, দ্য নুড বম্ব ও উইন টন টন দ্য ডগ সেভড হলিউড ছবিতে। তার অভিনীত অন্য ক্ল্যাসিক সিনেমার মধ্যে আছে মিউজিক্যাল ফ্যান্টাসি ‘আ কানেকটিকাট ইয়াঙ্কি ইন কিং আর্থারস কোট’, ওয়েস্টার্ন ‘গানফাইট অ্যাট দ্য ওকে করাল’ ও নয়ার ধাঁচের ‘স্লাইটলি স্কারলেট’।

মৃত্যুর আগে তিনি ছেলে, নাতি-নাতনি ও তাদের সন্তানদের রেখে গেছেন। তার বেশ কয়েকজন দত্তক সন্তানও রয়েছে। জীবনের শেষ দিকে দাতব্য কাজের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন অভিনেত্রী। ক্যানসার, গৃহহীন মানুষ ও নিগৃহীত শিশু নিয়ে কাজ করছে এমন অনেক সংস্থার সঙ্গে সম্পৃক্ততা ছিল তার।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *