রাজশাহীতে নাশকতার পরিকল্পনা: জামায়াত-শিবিরের ১২ কর্মী আটক

জাতীয় সারাবাংলা

ডেস্ক রিপোর্ট: রাজশাহী নগরীতে নাশকতার পরিকল্পনায় গ্রেপ্তার হয়েছেন জামায়াত ও শিবিরের ১২ নেতাকর্মী। শুক্রবার (২২ অক্টোবর) রাত সাড়ে ৭ দিকে নগরীর উপকণ্ঠ পবার পালোপাড়া মধ্যপাড়া থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে নগর পুলিশ। পুলিশ জানায়, নাশকতার পরিকল্পনায় জামায়াত-শিবিরের গোপন বৈঠক চলছিল। সেখান থেকে ১২ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে জিহাদি বই, ব্যানার, জামায়াত-শিবিরের সদস্য সংগ্রহ ফরম ও চাঁদা আদায়ের রশিদ উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- পবার বায়া ভোরাবাড়ি এলাকার মনিরুল ইসলাম (৫০), পালোপাড়ার কলিম উদ্দিন ওরফে গাজি উদ্দিন (৬৮), একই এলাকার আব্দুল মতিন (২৫), আব্দুল মোমিন ওরফে মিলন (২৫), ফয়সাল আহমেদ (২০), আজাহার আলী (৩৫), আবু বক্কর (৪২), আব্দুর রব (৩০), উজ্জল হোসেন (৩৪), আব্দুল হালিম (৩৫), ওবেদ (৫০) ও আবুল হোসেন (৬১)।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) দুপুরের দিকে নিজ দপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে অভিযানের আদ্যপান্ত জানান নগর পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক। তিনি বলেন, পবা থানার পালোপাড়া মধ্যপাড়া গ্রামের একটি বাড়িতে জামায়াত-শিবিরের কয়েকজন সদস্য নাশকতামূলক কর্মকান্ড পরিচালনার লক্ষ্যে গোপন বৈঠক করছে।

নগর পুলিশের শাহমখদুম বিভাগের উপপুলিশ কমিশনার মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম, উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি) আরেফিন জুয়েল, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিবি) আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, পবা থানার অফিসার ওসি সিরাজুম মনির ও নগর গোয়েন্দা পুলিশের একটি বিশেষ টিম সেখানে অভিযান চালিয়ে ১২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে তারা নিজেদের জামায়ত-শিবিরের সক্রিয় কর্মী হিসেবে স্বীকার করেছেন। জামায়াত শিবিরের কার্যক্রম জোরদার করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে নাশকতামূলক কর্মকা- পরিচালনার পরিকল্পনা করছিলেন তারা।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *