রাজশাহীতে হাত-পা-মুখ বাঁধা দুই জনের লাশ উদ্ধার

সারাবাংলা

ডেস্ক রিপোর্ট : রাজশাহীতে দুজনের হাত, পা ও মুখ বাঁধা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এদের একজন মৎস্য চাষি ও একজন নৈশপ্রহরী।

সোমবার সকালে রাজশাহী নগরীর নওদাপাড়া এবং জেলার গোদাগাড়ী উপজেলার লালাদীঘি এলাকা থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

গোদাগাড়ী উপজেলায় নিহত ব্যক্তির নাম মাসুদ রানা (৪৫)। উপজেলার চাপাল গ্রামের আবদুল খালেকের ছেলে তিনি।

রাজশাহী নগরীর শাহমখদুম থানার নওদাপাড়ায় নিহত ব্যক্তির নাম আনিসুর রহমান ওরফে নারা (৭০)। রোড নওদাপাড়া এলাকায় তার বাড়ি।

গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, মাসুদ রানা ও তার এলাকার মো. লিটন নামের আরেক ব্যক্তি একসঙ্গে একটি সরকারি পুকুর ইজারা নিয়ে মাছ চাষ করেন। সোমবার ভোরে পুকুরে মাছ ধরার কথা ছিল। এ কারণে রবিবার দিবাগত রাতে তারা দুজন পুকুরে যান। তারা পুকুরপাড়ে টং ঘরে ছিলেন।

এরপর রাত ৩টার দিকে একদল দুর্বৃত্ত ওই পুকুরে মাছ চুরি করতে যায়। তারা লিটন ও মাসুদের হাত, পা ও মুখ বেঁধে ফেলে রাখে। এরপর তারা পুকুরে জাল ফেলে মাছ ধরতে থাকে। এরই মধ্যে লিটন ও মাসুদের ঠিক করা জেলেরা মাছ ধরতে চলে আসেন। তাদের দেখে চোরেরা জাল ও মাছ ফেলে পালিয়ে যায়।

এরপর জেলেরা টংঘরে গিয়ে লিটনের হাত-পায়ের বাঁধন খুলে দেন। তখন দেখা যায় মাসুদ মারা গেছেন।

এদিকে শাহমখদুম থানার ওসি সাইফুল ইসলাম খান জানান, নওদাপাড়া বাজারে একটি অটোরিকশার গ্যারেজের নৈশপ্রহরী ছিলেন আনিসুর রহমান।

সোমবার সকালে গ্যারেজের ভেতর তার হাত, পা ও মুখ বাঁধা লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন।

লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য রামেকের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে ওসি জানিয়েছেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *