রাশিয়ার ভ্যাকসিন ‘স্পুটনিক ভি’ ৯৬ শতাংশ কার্যকর

আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : রাশিয়ার টিকা প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান গামালেয়া রিসার্চ সেন্টারের পরিচালক আলেকজান্ডার গিন্টসবার্গ জানিয়েছেন, ‘স্পুটনিক ভি’ ভ্যাকসিন ৯৬ শতাংশ কার্যকর। করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে এই ভ্যাকসিন দীর্ঘ দুই বছর সুরক্ষা দিতে পারবে।

রাশিয়ার এই বিজ্ঞানীর মতে, স্পুটনিক ভি ৯৬ শতাংশ ক্ষেত্রে কার্যকর। ভ্যাকসিন নেয়া বাকী চার শতাংশ মানুষের মধ্যে সর্দি, কাশি ও হালকা জ্বরসহ করোনার নানা উপসর্গ থাকবে, তবে তাদের ফুসফুস সংক্রমিত হবে না।

তিনি বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমি কেবল পরামর্শ দিতে পারি, কারণ আরও পরীক্ষামূলক তথ্য প্রয়োজন। আমাদের ভ্যাকসিনটি ইবোলা ভ্যাকসিনের জন্য ব্যবহৃত প্ল্যাটফর্মে তৈরি করা হয়েছিল। এই মুহূর্তে প্রাপ্ত পরীক্ষামূলক তথ্যগুলো প্রমাণ করে যে এই একই ধরনের ভ্যাকসিন দুই বছরের জন্য বা সম্ভবত আরও বেশি সময় সুরক্ষা দেবে।’ খবর: রুশ বার্তা সংস্থা তাস।

গত ১১ আগস্ট রাশিয়ার নিবন্ধিত ‘স্পুটনিক ভি’ বিশ্বের প্রথম করোনাভাইরাস ভ্যাকসিন হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। ভ্যাকসিনটি তৈরি করে রুশ প্রতিষ্ঠান গামালেয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউট অব এপিডেমিওলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজি।

এর আগে নভেম্বর মাসে গামালেয়া রিসার্চ সেন্টার, রাশিয়া ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড (আরডিআইএফ) ও রুশ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক যৌথ বিবৃতিতে জানায়, স্পুটনিক ভি ভ্যাকসিনের ৯৫ শতাংশ কার্যকারিতার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে এবং টিকার প্রথম ডোজ দেয়ার ৪২ দিন পর পাওয়া প্রাথমিক তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে এটি নির্ধারিত হয়েছে।

ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়, প্রথম দফায় স্পুটনিক ভ্যাকসিনের একটি ডোজ দেয়ার ২৮ দিন পর এর কার্যকারিতা ছিল ৯১.৪ শতাংশ এবং ৪২ দিন পর টিকার দ্বিতীয় ডোজ প্রয়োগের পর এর কার্যকারিতা পাওয়া গেছে ৯৫ শতাংশ।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *