রাশিয়ান বিধ্বস্ত বিমানের ১৯ আরোহীর মরদেহ উদ্ধার

আন্তর্জাতিক লিড ১
উড়োজাহাজের ২৮ আরোহীর মধ্যে ২২ জন সাধারণ যাত্রী এবং ৬ জন ক্রু ছিলেন। যাত্রীদের মধ্যে দুজন অপ্রাপ্তবয়স্ক ছিল বলে জানা গেছে।

এদিকে উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হওয়ার ঘটনায় তিন দিনের শোক ঘোষণা করেছেন কামচাতকার গভর্নর ভ্লাদিমির সোলোদভ। নিহত ব্যক্তিদের পরিবারকে ৪৭ হাজার মার্কিন ডলার করে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। এ ছাড়া তাঁদের পরিবারের সঙ্গেও দেখা করেছেন গভর্নর। এ ঘটনায় সমবেদনা জানিয়েছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনও।

গত মঙ্গলবার যাত্রীবাহী এন-২৬ উড়োজাহাজটি কামচাতকার প্রধান শহর পেত্রোপাভলোভস্ক-কামচাতস্কি থেকে উপকূলীয় শহর পালানাতে যাচ্ছিল। সেদিন ২টা ৪০ মিনিটে রওনা হওয়ার পর পালানা বিমানবন্দর থেকে নয় কিলোমিটার দূরে থাকতে উড়োজাহাজটির সঙ্গে নিয়ন্ত্রণকক্ষের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পরে সকাল ৯টা ৬ মিনিটে উড়োজাহাজটির ধ্বংসাবশেষের সন্ধান মেলে। উড়োজাহাজটি খারাপ আবহাওয়ার কারণে বিধ্বস্ত হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। দুর্ঘটনার সময় ওই এলাকা মেঘাচ্ছন্ন ছিল বলে জানিয়েছে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোও।

এন-২৬ মডেলের উড়োজাহাজগুলো বেশ পুরোনো। সেগুলো ১৯৬৯ থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত সোভিয়েত ইউনিয়ন যুগে তৈরি করা হয়েছিল। সাধারণত পরিবহনের কাজে ব্যবহার হওয়া এ উড়োজাহাজগুলো আগেও বেশ কয়েকবার দুর্ঘটনার শিকার হয়েছে।

২০১২ সালে একই মডেলের অপর একটি উড়োজাহাজ কামচাতকার একটি জঙ্গলে বিধ্বস্ত হয়ে ১০ জন নিহত হন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *