রায়পুরে তিন চোর গ্রেফতার

সারাবাংলা

রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি
লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার দক্ষিন চরবংশী ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডস্থ মৃধ্যা কান্দির গাজী বাড়িতে চুরি সংগঠিত হয়েছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে চুরি যাওয়া মালামালের সূত্র ধরে আমজাদ, আমরাজ ও আলমগীর নামে তিন চোরকে গ্রেফতার করেছে রায়পুর থানা পুলিশ। উদ্ধার করেছে চুরি হওয়া আংশিক টাকা ও স্বর্ণালংকার। মামলার এজাহার অনুযায়ী জানা যায়, গাজী বাড়ির মালয়েশিয়া প্রবাসী আবদুল আলী গাজীর স্ত্রী গত ২০ সেপ্টেম্বর রাত আনুমানিক দেড়টার সময় প্রবাসী স্বামীর সঙ্গে ফোনে কথা বলতে ঘর থেকে বের হয়ে প্রায় আধা ঘণ্টা কথা বলার পর ঘরে ফিরে ঘুমিয়ে পড়েন এবং ভোর ৫টায় ঘুম থেকে উঠে দেখেন ওয়ারড্রব, ড্রেসিং টেবিল ও ড্রয়ারের তালা ভাঙা। এতে সন্দেহ দেখা দিলে জিনিসপত্র খোঁজাখুঁজি করতে গিয়ে দেখি স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকাসহ প্রায় ১ লাখ ৯৪ হাজার ৪শত টাকা (সব মিলিয়ে) গায়েব এবং আমাদের বাড়ির ছাদের সিড়ির উপরের টিন খোলা। এতে সন্দেহ হয় যে, চোরেরা আমাদের চাদের উপর দিয়েই একে একে প্রবেশ করে এ চুরির ঘটনা ঘটায়। উক্ত চুরির ঘটনায় প্রবাসীর স্ত্রী নাজমা বেগম গত ২১ সেপ্টেম্বর রায়পুর থানায় মামলা করেলে রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিলের সার্বিক দিক নির্দেশনায় হাজীমারা পুলিশ পরিদর্শক মো. ইউছুফ আলী ও সঙ্গীয় ফোর্সসহ অভিযান পরিচালনা করে ৬ দিনের মধ্যেই গত রোববার রাতে চোরদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। প্রথমত একই গ্রামের বাসিন্দা আমজাদ (২১) ও আমরাজ (১৯) কে গ্রেফতারের পর তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ৩য় চোর আলমগীরকেও গ্রেফতার করা হয় বলে জানায় পুলিশ। তাহারা সকলেই রায়পুর উপজেলার দক্ষিন চরবংশী ইউনিয়নের বাসিন্দা। উদ্ধারকৃত মালামালের মধ্যে ছিল ১টি হাতের রুলি, ১টি কানের দুল ও নগদ ১হাজার ৬ শত টাকা। এ ব্যাপারে রায়পুর থানার ওসি আবদুল জলিল বলেন, আমরা তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে চোরদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি এবং আসামিদের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *