রেলের জায়গায় অবৈধ ভাড়ার ঘর

সারাবাংলা

রাজীব রাহুল, চট্টগ্রাম ব্যুরো
রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিদ্যুৎ বিভাগে চাকরি করেন শেখ নাসির উদ্দিন আহমেদ পিন্টু। রেলওয়ের জায়গায় অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগের লাইন কেটে দেওয়াই হল তার কাজ।কিন্তু শেখ নাসির উদ্দিন আহমেদ নগরীর আমবাগান এলাকায় রেলের জায়গা অবৈধভাবে দখল করে নিজেই গড়ে তুলেছেন দুই শতাধিক ঘর। এযেন রক্ষক ভক্ষকে রুপ নেয়ার মত কাহিনী। রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের ভূসম্পত্তি বিভাগের পরিচালিত অভিযানে এই ঘটনা সামনে আসে।অবাক ব্যাপার হচ্ছে এসব ভাড়া ঘর থেকে গত ১৪বছর ধরে মিন্টু লাখ লাখ টাকা আয় করতেন রেলওয়ের কয়েকজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে। অভিযানে দেখা যায়,মিন্টু কলোনী নামে পরিচিত এসব ভাড়া ঘরে নিজেই অবৈধ বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংযোগ নিয়েছেন।কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী ও পিডিবি’র কতিপয় অসাধু কর্মচারী এসব অবৈধ লাইনের বিপরীতে মোটা অংকের টাকা গ্রহণ করতো মিন্টুর কাছ থেকে।অবশেষে গত সোমবার সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল ভুসম্পত্তি বিভাগ পরিচালিত অভিযানে এসব অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়ে শূণ্য দশমিক ৭৯একর জমি উদ্ধার করা হয়। তাছাড়া সেমিপাকা, আধা সেমিপাকা, টিনশেড ও ঝুপড়ি মিলিয়ে মোট ২৩১টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। এদিকে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের বিভাগীয় ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা মাহবুবউল করিম জানান, মিন্টু কলোনিতে অভিযান চালিয়ে উচ্ছেদ করা হয়েছে ৪০৯ জন দখলদারকে। ২৩২টি অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে।আধা-পাকা ও টিন শেড ঘর স্কেভেটর দিয়ে গুঁড়িয়ে দেয়া হয় । তিনি আরো বলেন, যদি অবৈধ বা সরকারি জায়গা দখল করে তাতে বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংযোগ না পায় তাহলে রেলের জায়গা দখল করে ঘর নির্মাণে প্রবণতা কমে আসবে এবং সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্টানগুলো এসব অবৈধ ঘরে কিভাবে বিদ্যুৎ ও গ্যাস সংযোগ এল তার একটা তদন্ত করে দেখতে পারে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *