রোনালদোকে ছাড়াই পর্তুগালের সহজ জয়

খেলাধুলা

ডেস্ক রিপোর্ট : ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ক্যাম্প ছেড়ে গেছেন চলতি আন্তর্জাতিক ফুটবল বিরতির প্রথম ম্যাচটা খেলেই। প্রীতি ম্যাচ বলেই হয়তো, কোচ ফের্নান্দো সান্তোস একাদশটাই দিলেন পাল্টে। তবে তাতে পর্তুগালের খেলায় খুব একটা পরিবর্তন এলো না। কাতারকে ৩-১ গোলের ব্যবধানে অনায়াসেই হারিয়েছে দলটি।

তবে পর্তুগালের এ জয়ে প্রতিপক্ষেরও ‘অবদান’ আছে বৈকি। প্রথমার্ধের শেষ দিকে পরিণত হয়েছিল দশ জনের দলে। এরপর অন্তিম সময়ে দেখল আরও এক লাল কার্ড। নয় জনের দল নিয়ে মাঠ ছাড়ার সময় যে ব্যবধানটা আরও বাড়েনি তাই তো অনেক!

রোনালদো ছিলেন না। কারণ আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে দেখা হলুদ কার্ড ইউরোপিয়ান বিশ্বকাপ বাছাই থেকে এক ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ করে দিয়েছে তাকে। ফলে ক্যাম্প থেকে একটু আগেই ছুটি পেয়ে গেছেন পর্তুগিজ অধিনায়ক।

তবে রোনালদোকে ছাড়াও যে খুব একটা সমস্যা হয়নি পর্তুগালের, তা অন্তত স্কোরলাইন দেখেই ঠাহর করা যাচ্ছে। আসছে বিশ্বকাপের আয়োজক কাতারও শুরুটা করেছিল আত্মবিশ্বাসী। নয় মিনিটে যে সুযোগটা পেয়েছিল, একটু এদিক ওদিক হলে জড়িয়ে যেতে পারত জালেও। কিন্তু আবদেল আজিজ হাতিমের শটটা প্রতিহত হয় গোলপোস্টে, এর মিনিট সাতেক পর তার আরও এক চেষ্টা ভেস্তে দেন পর্তুগিজ গোলরক্ষক অ্যান্থনি লোপেজ।

শুরুতে একটু নড়বড়ে ছিল পর্তুগাল। আগের ম্যাচে শুরুর একাদশে ছিলেন না এদের কেউ, ধাতস্থ হতে যে সময় চাই দলের, সেটা অনুমিতই ছিল। ম্যাচের বয়স বিশ মিনিট পেরোতেই যেন স্বরূপে ফিরল পর্তুগাল। গোল পেল ৯০ সেকেন্ডের ব্যবধানে দুটো।

২৩ মিনিটে অরক্ষিত আন্দ্রে সিলভার দারুণ এক হেডার আছড়ে পড়ে কাতারের জালে। পরের মিনিটে দ্বিতীয় গোলটা এলো, সেটাই হেড থেকেই। গোলের দেখা পেলেন অভিষিক্ত ওটাভিও।

আত্মবিশ্বাসী শুরুর পরও দুই গোলে পিছিয়ে দুর্দশায় ছিল কাতার। সেটা আরও বাড়িয়েছে বিরতির একটু আগে গোলরক্ষক মেশাল বেরশামের লাল কার্ড। ভিএআর থেকে আসা এই সিদ্ধান্তে কাতার বনে যায় দশ জনের দল।

তবে তাতে মনোবল ভেঙে যায়নি ২০২২ বিশ্বকাপ স্বাগতিকদের। ৬১ মিনিটে দারুণ এক হেডার থেকে ব্যবধান কমান আবদেলকারিম হাসান। তাতে কাতার ম্যাচটা ড্র করার আশাও খুঁজে পেয়েছিল বেশ। কিন্তু ৮৫ মিনিটে পেনাল্টি পেয়ে যায় পর্তুগাল। সে সিদ্ধান্তে অসন্তুষ্ট হয়ে তা প্রকাশই করে বসেন কাতারের ডিফেন্ডার বুয়ায়েম খোউখি। পেনাল্টি থেকে ৩-১ ব্যবধানে দলকে এগিয়ে ম্যাচের সব অনিশ্চয়তা মুছে দেন ব্রুনো ফের্নান্দেজ।

প্রীতি ম্যাচে এই জয়ের পর পর্তুগাল ইউরোপীয় অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ে মনোযোগ দেবে আবার। আগামী মঙ্গলবার আজারবাইজানের মাঠে খেলবে ২০০৬ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালিস্টরা।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *