লটারির মাধ্যমে ভর্তি হবে মহানগর থেকে জেলা পর্যন্ত স্কুলের শিক্ষার্থীরা

শিক্ষা শিক্ষাঙ্গন

ডেস্ক রিপোর্ট: সরকারি স্কুলে লটারি ১৫ এবং বেসরকারি স্কুলে ১৯ ডিসেম্বর আগামী শিক্ষাবর্ষে এবারও প্রথম থেকে নবম শ্রেণির ভর্তিতে কোনো পরীক্ষা থাকছে না। লটারি পদ্ধতিতে শিক্ষার্থীরা ভর্তি হবে। প্রথমবারের মত এবার মহানগর থেকে জেলা পর্যায়ের সব সরকারি-বেসরকারি বিদ্যালয়ে এ লটারি পদ্ধতি কার্যকর হবে। বৃহস্পতিবার মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের (মাউশি) একটি সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সভার সিদ্ধান্তগুলো এখন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। সেখানে এর বৈধতা দেয়া হলে মাউশি নির্দেশনা জারি করবে। বৈঠক সূত্র এসব তথ্য জানিয়েছে।

বৈঠকে উপস্থিত এমন কয়েকটি সূত্র জানিয়েছে, আগামী ২৫ নভেম্বর থেকে সারা দেশের স্কুলগুলোতে ভর্তির অনলাইন আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। এ আবেদনের সময়সীমা ৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত নির্ধারণ করা হয়েছে। মহানগর থেকে জেলা পর্যন্ত স্কুলগুলোতে ভর্তির জন্য একজন শিক্ষার্থী সর্বোচ্চ পাঁচটি স্কুলে আবেদন করতে পারবেন। তবে আবেদন ফরমের দাম এখনো ঠিক হয়নি।

জানতে চাইলে বৈঠকে অংশ নেয়া মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ড. শাহান আরা বেগম ভোরের কাগজকে বলেন, মহানগর থেকে জেলা পর্যায় পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারি স্কুলের পুরো ভর্তি প্রক্রিয়া কেন্দ্রীয়ভাবে সমন্বয় করা হবে। ৮ ডিসেম্বরের মধ্যে আবেদন ফর বিতরন শেষ হবে। এরপর সরকারি স্কুলে ভর্তির লটারি হবে ১৫ ডিসেম্বর এবং বেসরকারি স্কুলে ভর্তির লটারি হবে ১৯ ডিসেম্বর। একজন শিক্ষার্থী কি সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে পাঁচটি স্কুলে ভর্তির আবেদন করতে পারবে-এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এই বিষয়টি বৃহস্পতিবারের সভায় চূড়ান্ত হয়নি। আগামী শিক্ষাবর্ষের ভর্তির ক্ষেত্রে নতুন কোন বিষয় যুক্ত হয়েছে-এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আগের নীতিমালাগুলো দুই শতাংশ কোটা রাখা ছিল। এবার কোটার বাইরে সিদ্ধান্ত হয়েছে স্ব স্ব স্কুলের শিক্ষক-কর্মচারীর সন্তানরা নিজ নিজ স্কুলে ভর্তি হতে পারবে। ভর্তি ফরমের দামের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, করোনার কারণে দীর্ঘদিন দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল। সম্প্রতি করোনার প্রকোপ কমে যাওয়ায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ধীরে ধীরে খুলে দেয়া হচ্ছে। করোনার প্রভাব অর্থনীতিতে পড়ায় নতুন বছরে স্কুল ভর্তির আবেদন ফি কমানোর হয়েছে। চলতি বছর পর্যন্ত প্রতিটি বেসরকারি স্কুলে ভর্তি ফরম ২০০ টাকা আর সরকারি স্কুলে ১৭০ টাকা ধার্য ছিল। এবার একসঙ্গে পাঁচটি স্কুলে আবেদনের জন্য ১১০ টাকা প্রস্তাব করা হয়েছে।

জানা গেছে, সরকারি স্কুলের প্রথম থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত লটারিতে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ১৮ ডিসেম্বর থেকে ২৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভর্তি করানো হবে। অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে ২৬ থেকে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভর্তি করানো যাবে। বেসরকারির ভর্তি ২১ থেকে ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত লটারিতে নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের ভর্তি করানো হবে। অপেক্ষমাণ তালিকা অনুযায়ী ২৮ থেকে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত ভর্তি করানো হবে। অর্থাৎ ডিসেম্বরের মধ্যেই ভর্তি প্রক্রিয়া শেষ হবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *