লালমনিরহাটের মোটরসাইকেল চোরাচালান চক্রের ৫ সদস্য গ্রেপ্তার

সারাবাংলা

ডেস্ক রিপোর্ট: লালমনিরহাটের পাটগ্রামের বিভিন্ন স্থানে বিশেষ অভিযান চালিয়ে আন্তঃজেলা মোটরসাইকেল চোরাচালান চক্রের ৫ সদস্যকে গ্রেপ্তার ও তিনটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ।

গতকাল রবিবার (১৪ মার্চ) লালমনিরহাটের পুলিশ সুপার আবিদা সুলতানা ও জ্যেষ্ঠ  সহকারী পুলিশ সুপার (বি-সার্কেল) তাপস সরকারের  নির্দেশনায় পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্তের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল এ অভিযান পরিচালনা করে।

মোটরসাইকেল চুরির ঘটনায় উপজেলার জোংড়া ইউনিয়নের আলাউদ্দিন নগর এলাকার সাইফুর রহমান বাদী হয়ে পাটগ্রাম থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

থানা পুলিশ সূত্রে  জানা গেছে, সম্প্রতি মসজিদের পাশে মোটরসাইকেল রেখে  নামাজ পড়তে যান উপজেলার জোংড়া ইউনিয়নের আলাউদ্দিননগর এলাকার সাইফুর রহমানের বাবা। নামায পড়া শেষে তিনি দেখতে পান তাঁর মোটরসাইকেলটি নেই। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হলে  পুলিশ ওই মোটরসাইকেলের সূত্রধরে আন্তঃজেলা মোটরসাইকেল চোরাচালান চক্রের ৫ জন সদস্যকে গ্রেপ্তার ও তিনটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করে।

গ্রেপ্তার আসামিদের তথ্যমতে, চোরাই মোটরসাইকেলসহ জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ও রংপুর শহর থেকে  চুরি হওয়া তিনটি চোরাই মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়।

চোরাচালান চক্রের গ্রেপ্তার সদস্যরা হলেন উপজেলার জগতবেড় ইউনিয়নের ভেরভেরির হাট গ্রামের নুরুজ্জামানের ছেলে  মো. মেহেদী হাসান মোহন (২০), বুড়িমারী ইউনিয়নের উফারমারা গুড়িয়াটারি গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে সেলিম আলম ওরফে মামুন (২২), পাটগ্রাম পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড বানিয়াপাড়া এলাকার মৃত শফিকুল ইসলামের ছেলে  মো. রনি (২২), পাটগ্রাম পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ড রহমানপুর আনন্দবাজার এলাকার রবিউল ইসলামের ছেলে শাহিন ইসলাম (২১), পাটগ্রাম পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ড সোহাগপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে মাহফুজার রহমান ওরফে লিটু হোসেন (২২)।

পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত বলেন, ‘মোটরসাইকেল চোরাচালান চক্রের পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়ছে। গ্রেপ্তারদের আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।’

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *