লুকাকুর জোড়া গোলে ৬০০তম জয়ে চেলসি

খেলাধুলা

ডেস্ক রিপোর্ট : জোড়া গোল করলেন রোমেলু লুকাকু। বাকি একটি মাতেও কোভাসিচের। শনিবার রাতে স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে অ্যাস্টন ভিলাকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে চেলসি। লিগ টেবিলের শীর্ষে থাকা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সমান ১০ পয়েন্ট নিয়ে এখন দুইয়ে থমাস টাচেলের দল।

এদিন আবার লিগে ৬০০তম জয়ের মাইলফলক স্পর্শ করেছে চেলসি। আর মাত্র একটি দলেরই ছয়শ বা তার বেশি জয়ের কীর্তি আছে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড জিতেছে ৬৯০টি।

ইন্টার মিলান থেকে চেলসিতে নাম লেখানো লুকাকু স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে তার স্বপ্নপূরণের এক রাত কাটিয়েছেন। ম্যাচের পর বেলজিয়ান স্ট্রাইকার বলেন, ‌‌’আমার বয়স যখন ১১, তখন থেকেই এই স্বপ্ন দেখতাম (এখানে গোল করার)। আমি এই মুহূর্তটার জন্য কঠোর পরিশ্রম করেছি। জয় পেয়ে খুবই খুশি।’

ম্যাচের ফলে বোঝা যাচ্ছে না কতটা মরিয়া হয়ে লড়েছে অ্যাস্টন ভিলা। চেলসির চেয়ে আক্রমণে বেশ এগিয়ে ছিল তারা (১৬টির মধ্যে লক্ষ্যে ৬টি, চেলসির ১২টির মধ্যে লক্ষ্যে ৪টি)। কিন্তু সুযোগ কাজে লাগিয়েছে ব্লুজরাই।

প্রথমার্ধে দুর্দান্ত কিছু সেভে ভিলাকে হতাশ করেন চেলসি গোলরক্ষক এদোয়ার্দ মেন্দি। ১৫তম মিনিটে দলকে এগিয়ে নেন লুকাকু। কোভাসিচের পাস ধরে এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে নিখুঁত শটে গোলরক্ষকের পায়ের ফাঁক দিয়ে জাল খুঁজে নেন বেলজিয়ান ফরোয়ার্ড। ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় স্বাগতিকরা।

দ্বিতীয়ার্ধও দাপটের সঙ্গে শুরু করে ভিলা। কিন্তু অ্যাক্সেল তোয়ানজেবের আরেকটি নিশ্চিত গোলের সুযোগ প্রতিহত করে দেন মেন্দি। এরই মধ্যে ৪৯ মিনিটে দ্বিতীয় গোলটি খেয়ে বসে অতিথিরা। ডিফেন্ডার মিঙ্গসের ভুলে বল পেয়ে গোলরক্ষককে অনায়াসে পরাস্ত করেন কোভাসিচ।

এরপরও ম্যাচে ফিরতে চেষ্টা করেছে ভিলা। কিন্তু কাজের কাজ হয়নি। যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে ভিলার কফিনে শেষ পেরেকটি ঠুকেন লুকাকু। সেসার আসপিলিকুয়েতার পাস থেকে বল পেয়ে বক্সের বাইরে থেকে বাঁ পায়ের শটে জাল কাঁপান বেলজিয়ান তারকা।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *