শিক্ষার মান উন্নয়নে অবদান রাখছেন মঞ্জু দেওয়ান

সারাবাংলা

খোরশেদ আলম, আশুলিয়া থেকে : ঢাকার আদূরে সাভারের আশুলিয়া থানাটি শিল্পাঞ্চল থানা হিসেবে পরিচিত। দেশের অর্থনীতির বেশিরভাগ অর্থ আসে এখান থেকেই। আশুলিয়া থানাধীন ইয়ারপুর ইউনিয়নের জিরাবো উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর থেকে অত্যন্ত সুনামের সাথে শিক্ষা সেবা কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। প্রতিষ্ঠানটির সভাপতি দেওয়ান মেহেদী মাসুদ মঞ্জুর বিরামহীন প্রচেষ্টায় ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষার মান উন্নয়ন ঘটছে। অভিভাবক ও এলাকাবাসীরা বলছেন, দেওয়ান মঞ্জু ভাইয়ের মতো মানুষ শিক্ষা অঙ্গনকে যদি দেখাশোনা করে তাহলে আমরা মনে করি শিক্ষা কার্যক্রম আরো গতিশীল হবে। দেশে শিক্ষার হার আরো বৃদ্ধি পাবে। এ রকম নেতা প্রত্যেকটি জেলায় প্রয়োজন। স্কুল প্রতিষ্ঠার পর থেকে এই প্রতিষ্ঠানের যতটুকু অবকাঠামোগত উন্নয়ন হয়েছে তা এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পরিষদের বতর্মান সভাপতি সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমান সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান মেহেদী মাসুদ মঞ্জুর সময়ে বেশি। সরেজমিনে প্রতিষ্ঠানে গিয়ে দেখা যায়, পুরনো ভবনের ঠিক সামনের ৮০ ফুট লম্বা জরাজীর্ণ তিনতলা ভবনটি ভেঙ্গে ১২০ ফুট লম্বা চারতলা একটি নতুন ভবন নির্মিত হচ্ছে।

এই ভবন নির্মাণের ফলে বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের দীর্ঘদিনের দাবী পূরণ হলো। আর এক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় ভ‚মিকা রেখেছেন প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পরিষদের বর্তমান সভাপতি দেওয়ান মেহেদী মাসুদ মঞ্জু।

এছাড়া বিশাল খেলার মাঠটি নিচু এবং খানাখন্দ বিশিষ্ট ব্যবহার অনুপযোগী ছিলো। বর্ষার সময় পানিতে ডুবে থাকতো এই মাঠ। দেওয়ান মেহেদী মাসুদ মঞ্জু তাঁর নিজ উদ্যোগে ও প্রচেষ্টায় সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম রাজীবের মাধ্যমে এই মাঠকে উঁচু করে আধুনিক খেলার মাঠে পরিণত করেছেন। ফলে বিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের পাশাপাশি এই অঞ্চলের যুবসমাজ খেলার মাঠমুখী হয়েছে। আর এই মাঠমুখী হবার কারণে মাদকাসক্তের হার এই এলাকায় উল্লেখযোগ্য হারে কমে গেছে।

সরেজমিন গিয়ে আরো দেখা গেছে, বেশকিছু সমস্যা এখনও রয়ে গেছে। এর ভিতরে রয়েছে বিদ্যালয়ের সামনের রাস্তাটি। যেটি দেওয়ান ইদ্রিস কলেজের গেটে গিয়ে শেষ হয়েছে, যা ব্যবহার অনুপযোগী। এই রাস্তাটি দ্রুত পাকা করা প্রয়োজন। এছাড়া রাস্তায় কয়েকটি সোলার লাইটের প্রয়োজন। এ ব্যাপারে জিরাবো উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি দেওয়ান মেহেদী মাসুদ মঞ্জু বলেন, আমি এই বিদ্যালয়ের অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য আমার সর্বোচ্চ মেধা প্রয়োগ করেছি। পুরনো ভবন যা আয়তনে ক্ষুদ্র ছিলো সেটাকে বর্ধিত করে চারতলা একটি আধুনিক ভবনে পরিণত করেছি। খেলার মাঠ সংস্কার করেছি। এসব কাজ করতে গিয়ে নব্য আওয়ামী লীগের বিভিন্ন ষড়যন্ত্রও আমাকে পিছু হটাতে পারেনি। তিনি আরও বলেন, এই প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নের জন্য ঢাকা-১৯ আসনের সংসদ সদস্য মাননীয় দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডাঃ এনামুর রহমান এমপি এবং সাভার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম রাজীবের ভূমিকা কৃতজ্ঞতা সহকারে স্বীকার করছি। তবে বিদ্যালয়ের নতুন চারতলা ভবনটি এই এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রয়াত দেওয়ান হাবিবুর রহমান এর নামে নামকরণ করার দাবি জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *