শীতে করোনার আরেকটি ঢেউ আসার সম্ভাবনা

সারাবাংলা

নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁয় করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। বেশ কয়েকদিন পর জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় এক ব্যক্তির শরীরে কভিড-১৯ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্ত ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়ালো ১ হাজার ৩২০ জনে। এই সময়ে নতুর করে মৃত্যু, কোয়ারেনটাইন এবং আইসোলেশনে নেওয়ার সংখ্যা ছিল শূন্যের কোঠায়। জেলায় আক্রান্তদের মধ্যে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ২৬৯ জন। সেই হিসেবে বর্তমানে আক্রান্ত রয়েছেন ৫১ জন। সুস্থ হওয়ার হার শতকরা ৯৬ দশমিক ২০ ভাগ। বিগত ১০ দিন পেরিয়ে গেছে জেলায় নতুন করে কোন ব্যক্তির মৃত্যু হয়নি। জেলায় এ পর্যন্ত মোট মৃত্যু ২১ জন।
কভিড-১৯ এ মোট আক্রান্তদের মধ্যে ২৭ জন চিকিৎসক, ৩০ জন নার্স ও ১১৮ জন অন্য কর্মকর্তা কর্মচারীসহ স্বাস্থ্য বিভাগের মোট ১৭৫ জন এবং পুলিশ বাহিনীর ৮৩ জন সদস্য রয়েছেন।
সিভিল সার্জন অফিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের বরাত দিয়ে ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মঞ্জুর মোরশেদ জানান, গত শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত এই ২৪ ঘন্টায় নতুন করে কোন ব্যক্তিকে কোয়ারেনটাইনে নেওয়া হয়নি। এই সময়ে কাউকে কোয়ারেনটাইন থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়নি। এমন কি এ সময় কেউ সুস্থ হয়নি। তিনি জানান, বর্তমানে জেলায় করোনা পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতির দিকে। গত ১৫ দিন ধরে নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার শতকরা ৪ থেকে ৫ ভাগ। এই হার ইতিপূর্বে ১৫ থেকে ২০ ভাগ ছিল। তবে তিনি বলেছেন আসন্ন শীত মৌসুমে কভিড-১৯ এর আরেকটি ঢেউ আসার সম্ভাবনা রয়েছে। কাজেই পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে মনে তরে গা ভাসিয়ে দিলে চলবে না। আমাদের স্বাস্থ্য বিধি মেনে এবং শারীরিক দুরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে। না হলে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে।
সূত্রমতে এ পর্যন্ত সর্বমোট কোয়ারেনটাইনে নেওয়া হয়েছে ১৬ হাজার ৩০৪ ব্যক্তিকে। এদের মধ্যে এ কোয়ারেনটাইন থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে মোট ১৫ হাজার ৯৯১ ব্যক্তিকে। বর্তমানে কোয়ানেরটাইনে রয়েছেন ৩১৩ জন। এদের মধ্যে হাসপাতাল কোয়ারেনটাইনে ছিলেন ৩৬০ জন। হাসপাতাল কোয়ারেনটাইন থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে ৩৫৫ জনকে। হাসপাতাল কোয়ারেনটাইনে রয়েছেন মাত্র ৫ জন। জেলায় আইসোলেশনে নেওয়া হয় ২৭ জনকে এবং এই ২৭ জনই বর্তমানে আইসোলেশন থেকে মুক্ত হয়েছেন। কাজেই বর্তমানে আর কেউ আইসোলেশনে নেই।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *