শীতে ঠোঁট ফাটা প্রতিরোধের করণীয়

লাইফ স্টাইল

লাইফ স্টাইল ডেস্ক : আসি আসি বলে শীত কড়া নাড়ছে দরজায়। এখন শুরু হয়ে যাবে ত্বক শুকিয়ে যাওয়া, ফাটা ঠোঁটের শুকনো হাসি। এই ঋতুতে বাতাসে আদ্রতার পরিমাণ কমে যায়। ফলে ঠোঁট ফাটার মাত্রা বেড়ে যায় এবং কম বেশি সকলেরই ঠোঁট ফাটে। ত্বকের চেয়েও রুক্ষ হয়ে ওঠে ঠোঁট।

শুষ্ক ও ফাটা ঠোঁট শুধু প্রাণবন্ত হাসির অন্তরায় নয়, শুষ্ক ঠোঁট যন্ত্রণাও দিতে পারে- বিশেষ করে ঠোঁট ফেটে গেলে ও রক্তক্ষরণ হলে।

ঠোঁট ফাটা ঠেকাতে অনেকেই চ্যাপস্টিক আর লিপবাম ব্যবহার করেন। এসব উপাদান হয়তো সাময়িক স্বস্তি দেয়, তা কিন্তু দীর্ঘমেয়াদি সমাধান নয়। লিপবাম বা চ্যাপস্টিকের বিকল্প হিসেবে প্রাকৃতিক উপায়ে ঠোঁট ফাটা ঠেকাতে পারেন। জেনে নিন কীভাবে ঠেকাবেন ঠোঁট ফাটা:

* ঠোঁট ফাটা ঠেকাতে দীর্ঘদিন ধরেই নারকেল তেলের ব্যবহার দেখা যায়। এতে প্রচুর পরিমাণ ফ্যাটি অ্যাসিড আছে, যা ঠোঁটের শুষ্কতা দূর করে। ঠোঁট ফাটা ঠেকাতে নিয়মিত নারকেল তেল লাগাতে পারেন।

*  অলিভ অয়েল প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার হিসেবে পরিচিত। এতে যে ফ্যাটি অ্যাসিড থাকে, তা ত্বকের শুষ্কতা দূর ও ঠোঁট ফাটা ঠেকাতে পারে। দিনে দুবার ঠোঁটে অলিভ অয়েল মাখলে ঠোঁট নরম ও মসৃণ হবে।

* পানি খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। কিন্তু জানেন কি, পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি খেলে তা আপনার ঠোঁট নরম রাখতেও সাহায্য করবে। পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি খান। এতে করে ঠোঁটের ত্বকে আর্দ্রতা বজায় থাকবে।

* আমরা অনেকেই স্বভাববশত রুক্ষ ঠোঁট কিছুক্ষণ পর পর জিভ দিয়ে ভিজিয়ে থাকি। কিন্তু নিমেষেই রুক্ষ ঠোঁটকে নরম করার এই সহজ উপায় আসলে ফাটা ঠোঁটের মূল কারণ। তাই ঠোঁট নরম রাখতে হলে এই অভ্যাস ছাড়ুন।

* ভিটামিন বি-এর অভাবও কিন্তু রুক্ষ ঠোঁটের কারণ হতে পারে। তাই শাকসবজি খান। ঠোঁট নরম রাখতে ভিটামিন বি খেতেই হবে।

* ঠোঁটে শীতকালে রুক্ষ চামড়া জমে থাকে। মাঝে মধ্যে স্ক্রাবিং করে সেই চামড়া সরিয়ে ফেলা খুবই প্রয়োজন। ঠোঁট নরম রাখতে সপ্তাহে একদিন ঠোঁটে স্ক্রাবিং করুন।

* মেয়েরা ঠোঁটে নানা ধরনের প্রসাধনী ব্যবহার করেন। ঠোঁটের ত্বকের ক্ষেত্রে যদি ভালো প্রসাধনী ব্যবহার না করেন তবে ঠোঁট শুকিয়ে গিয়ে তা ফেটে যায়। তাই ভালো কোনো ব্র্যান্ডের প্রসাধনী ব্যবহার করুন।

এভাবেই শীতের মৌসুমে নিজের সঙ্গে ঠোঁটকেও সুন্দর রাখুন, হাসিতেই বাজিমাত করুন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *