শুধু সংখ্যালঘু নয়, আফগানের সব শরণার্থীকেই আশ্রয় দিবে ভারত

আন্তর্জাতিক লিড ১

ডেস্ক রিপোর্ট : মঙ্গলবার আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল দখল করে নিয়েছে তালেবান। কাবুল থেকে ভারতে ফিরে এসেই সেদেশে নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত জানিয়েছিলেন, আফগানদের ভোলেনি ভারত। এদিকে আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে বিশেষ বৈঠকে বসেছিল ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রিপরিষদ। আর সেই বৈঠকে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জানিয়ে দিলেন, সব শরণার্থী আফগানকেই ভারতে আশ্রয় দেওয়া হবে। -খবর হিন্দুস্তান টাইমস ও দ্য হিন্দুর।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রাথমিকভাবে শুধু সেই দেশের সংখ্যালঘুদের শরণার্থী হিসেবে গ্রহণ করার কথা বলা হলেও পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় যে, ঝুঁকির মুখে দাঁড়িয়ে থাকা যেসব আফগান ভারতে আসতে চাইবেন, তাদের সবাইকেই আশ্রয় দেওয়া হবে। প্রাথমিকভাবে সিঙ্গল-এন্ট্রি ভিসা দেওয়া হবে ৬ মাসের। তারপর দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের যাচাই-বাছাইয়ের পর পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

জানা গেছে, দূতাবাস বন্ধ থাকায় বিনামূল্যে ই-ভিসা পরিসেবা চালু করা হয়েছে আফগান নাগরিকদের জন্য। সেই ভিসার মাধ্যমে সব আফগান নাগরিকই আবেদন জানাতে পারবেন ভারতে আসার জন্য। প্রাথমিকভাবে ছয় মাস মেয়াদের ভিসা দেওয়া হবে আশ্রয় চাওয়া আফগানদের। উল্লেখ্য, ইতোমধ্যেই কাবুলের বর্তমান পরিস্থিতির পরিপ্রেক্ষিতে ভারতীয় দূতাবাসের কর্মীদের কেন্দ্র সরিয়ে নিয়েছে। কাবুলে ভারতীয় দূতাবাসটি বর্তমানে স্থানীয় কর্মীরা রয়েছেন। তারাই কাজ পরিচালনা করছেন বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ক্যাবিনেট নিরাপত্তা কমিটির বৈঠকটি করেন তার নিজ বাসভবনেই। সেখানে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর।

এদিকে সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে জানা গেছে, আফগানিস্তান থেকে ভারতে আসতে চেয়ে ১ হাজার ৬৫০ জনেরও বেশি আবেদন জানিয়েছেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *