শুভ্র হত্যাকাণ্ড : মামলাটি ময়মনসিংহ ডিবিতে হস্তান্তর

সারাবাংলা

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি : গৌরীপুর পৌরসভার মেয়র প্রার্থী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদুর রহমান শুভ্র হত্যাকাণ্ডের মামলাটি গত বৃহস্পতিবার ময়মনসিংহ গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) কাছে হস্তান্তর করেছে থানা পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেন গৌরীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. বোরহান উদ্দিন খান।
ময়মনসিংহ গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) এর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহ কামাল আকন্দ জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। তথ্য-প্রযুক্তি গাইড লাইনের সহযোগিতায় অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে। বিজ্ঞ বিচারক এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনার প্রধান আসামি উপজেলা বিএনপির (একাংশের) যুগ্ম আহ্বায়ক ও মইলাকান্দা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রিয়াদুজ্জামান রিয়াদকে ৩ দিন ও অপর আসামি মইলাকান্দা ইউনিয়নের পশ্চিম কাউরাট গ্রামের চান মিয়ার ছেলে রাসেল মিয়া (৩২), ইউনুছ আলীর ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৩২) ও আব্দুল খালেকের ছেলে মজিবুর রহমান (৩০) প্রত্যককে ২ দিন করে পুলিশ হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অনুমতি দিয়েছে।
উল্লেখ্য, গৌরীপুর পৌরসভার পানমহালে পৌর মেয়র প্রার্থী হিসাবে গত শনিবার রাত ১০টার দিকে গণসংযোগ শেষে আব্দুর রহিমের দোকানে নির্বাচনী আলাপচারিতার সময় অতর্কিত হামলা চালিয়ে মাসুদুর রহমান শুভ্রকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এসময় তার দুই কর্মী আহত হয়। মামলায় উপজেলা বিএনপির (একাংশের) যুগ্ম আহ্বায়ক ও মইলাকান্দা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রিয়াদুজ্জামান রিয়াদ (৩৮), গৌরীপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম (৫০) ও তার দু’ভাই সৈয়দ তৌফিকুল ইসলাম (৪৫), সৈয়দ মাজহারুল ইসলাম জুয়েল (৪২), রিয়াদুজ্জামান রিয়াদের ভাই কার্জন, উত্তর বাজার মহল্লার সাকিব আহম্মেদ রেজা (৩৩), পশ্চিম ভালুকার রিফাত (৩২), মইলাকান্দা ইউনিয়নৈর লামাপাড়ার মোজাম্মেল (৩০), নন্দুরা গ্রামের সুমন (৩০), পশ্চিম কাউরাট গ্রামের খাইরুল (৩০) ও হানিফ (৩০), পশ্চিম কাউরাট গ্রামের চান মিয়ার ছেলে রাসেল মিয়া (৩২), ইউনুছ আলীর ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৩২) ও আব্দুল খালেকের ছেলে মজিবুর রহমান (৩০) কেসহ ও অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জনকে আসামি করা হয়।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *