শেষ মুহূর্তের গোলে পয়েন্ট খোয়াল পিএসজি

খেলাধুলা

খেলাধুলা ডেস্ক : জার্মান ক্লাপ আরবি লাইপজিগের বিপক্ষে আগের দেখায় পিএসজিকে জিতিয়েছিলেন লিওনেল মেসি। করেছিলেন জোড়া গোল। তবে চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্বে দুই দলের ফিরতি দেখায় নেই মেসি, জিতল না পিএসজিও। গতকাল লাইপজিগের বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করেছে মরিসিও পচেত্তিনো দল।

হ্যামস্ট্রিংয়ে টান লাগায় লিওনেল মেসিকে রেখেই গতকাল রেড বুল এরেনায় খেলতে নামে পিএসজি। নেইমার-এমবাপের সঙ্গে আক্রমণভাগে মেসির জায়গা নেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। এই তারকাবহুল আক্রমণভাগও অবশ্য জয় এনে দিতে পারেনি পিএসজিকে।

যদিও জয়ের পথেই ছিল পিএসজি। তবে ম্যাচের ইনজুরি সময়ে গোল হজম করে দলটি। সেটাও আবার পেনাল্টি থেকে। যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে ডমিনিক স্পটকিক থেকে গোল করলে হতাশায় পুড়তে হয় প্যারিসের ক্লাবটিকে।

গতকাল রাতে ঘরের মাঠে ম্যাচের ৮ মিনিটেই ক্রিশ্চোফার এনকুনকুর গোলে লিড নেয় লাইপজিগ। ২১ মিনিটে কিলিয়ান এমবাপের সহায়তায় সেই গোল শোধ দেন ওয়াইনাল্ডুম। এরপর ৩৯ মিনিটে ডিফেন্ডার মার্কুইনহোসের পাসে দলকে এগিয়ে নেয়ার গোলটিও করেন এই ডাচ মিডফিল্ডার।

সেই গোলে জয় দেখছিল পিএসজি। তবে ম্যাচের ৮৭ মিনিটে নিজেদের ডি বক্সে উড়ে আসা একটি বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে প্রতিপক্ষ ফুটবলারের শরীরের ওপর উঠে যান পিএসজি ডিফেন্ডার প্রেসনেল কিমপেম্বে। শুরুতে রেফারি পেনাল্টির আবেদনে সাড়া না দিলেও, ভিএআর দেখে নিজের সিদ্ধান্ত বদলান তিনি। তাতেই কপাল পোড়ে পিএসজির।

পিএসজি পয়েন্ট হারালেও গ্রুপের অন্য ম্যাচে বেলজিয়ামের ক্লাব ব্লুজকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। এ জয়ে সিটিজেনরা উদ্ধার করেছে গ্রুপ পর্বের শীর্ষস্থানও। সিটির হয়ে গোলগুলো করেছেন ফিল ফোডেন, রিয়াদ মাহরেজ, রাহিম স্টার্লিং এবং গ্যাব্রিয়েল জেসুস। এই চার গোলের মধ্যে তিনটিতেই অ্যাসিস্ট ছিল পর্তুগিজ ফুলব্যাক জোয়াও ক্যানসেলোর।

এদিকে, রাতের অন্যান্যা ম্যাচে জয় পেয়েছে লিভারপুল, আয়াক্স, স্পোর্টিং সিপি। লা লিগার বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে ঘরের মাঠ অ্যানফিল্ডে ২-০ গোলে হারায় লিভারপুল। এই জয়ে পরের পর্ব নিশ্চিত করল অল রেডরা।

জার্মান জায়ান্ট বরুশিয়া ডর্টমুন্ডকে ৩-১ হারিয়ে শেষ ষোল নিশ্চিত করেছে আয়াক্সও। এদিকে, বেসিকতাসকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর ছেলেবেলার ক্লাব স্পোর্টিং সিপি। তবে পোর্তোর সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে পয়েন্ট খুইয়েছে মিলান।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *