শোকের অশ্রুতে ভাসালেন অভিনেতা সাদেক বাচ্চু ও মহিউদ্দিন বাহার

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক: দেশের অভিনয় জগতে শোকের ছায়া। একদিনে মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে মারা গেলেন জনপ্রিয় দুইজন অভিনেতা। একজন হানিফ সংকেত সঞ্চালিত ‘ইত্যাদি’ অনুষ্ঠানের নিয়মিত শিল্পী ও সাবেক সিনিয়র সহকারী সচিব মহিউদ্দিন বাহার, অন্যজন চলচ্চিত্রের নামকরা খল অভিনেতা ও ডাক বিভাগের সাবেক কর্মকর্তা সাদেক বাচ্চু।

সোমবার প্রথম মৃত্যুর খবরটা আসে ভোর পাঁচটায়। সে সময় মারা যান অভিনেতা মহিউদ্দিন বাহার। এই অভিনেতার পরিবার জানায়, তিনি দীর্ঘদিন ধরে হার্টের ও কিডনি রোগসহ নানা সমস্যায় ভুগছিলেন। সোমবার ভোরে মারাত্মক অসুস্থ বোধ করলে অভিনেতাকে শাহবাগের বারডেম হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

মহিউদ্দিন বাহার পরিবারের সঙ্গে ঢাকার দয়াগঞ্জে নিজ বাড়িতে থাকতেন। তার পরিবারে স্ত্রী, দুই ছেলে এবং এক মেয়ে রয়েছে। মৃত্যুকালে এই অভিনেতার বয়স হয়েছিল ৭৩ বছর। আজ সোমবার আসরের নামাজ বাদে দয়াগঞ্জে জানাজা শেষে তাকে সেখানকারই একটি কবরস্থানে দাফন করা হবে।

মহিউদ্দিন বাহারের মৃত্যুর ঠিক সাত ঘণ্টা বাদে আসে খল অভিনেতা সাদেক বাচ্চু মৃত্যুর খবর। রাজধানীর মহাখালীর ইউনিভার্সাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বেলা ১২টার কিছু সময় পর তিনি মারা যান। এই অভিনেতার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন তার স্ত্রী শাহানা এবং সহকারী পরিচালক মাসুদ রানা।

সাদেক বাচ্চু করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। গত ৬ সেপ্টেম্বর জ্বর ও তীব্র শ্বাসকষ্ট নিয়ে তিনি প্রথমে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। সেখানে তার করোনা পরীক্ষা করালে ১১ সেপ্টেম্বর সেটির ফল পজিটিভ আসে।

এর পরদিনই সাদেক বাচ্চুকে মহাখালীর ইউনিভার্সাল হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। তিনি এই হাসপাতালটির কোভিড ইউনিটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন। সোমবার দুপুর ১২টার পর সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *