শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে এসে লাশ হলেন ২ ভায়রা সঙ্গে নিলেন শ্যালক

সারাবাংলা

ডেস্ক রিপোর্ট : রংপুরের বদরগঞ্জে শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে এসে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় দুই দুলাভাইসহ শ্যালক নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে একজন ঘটনাস্থলে এবং দুজন হাসপাতালে মারা যান।

মঙ্গলবার (৭ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে উপজেলার খিয়ারপাড়ার নাটারাম-পদাগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন চট্টগ্রামের হালিশহর উপজেলার আবদুল গফুরের ছেলে ইউসুফ আলী (৩৬), নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার বাচ্চু শিকদারের ছেলে নাহিদ শিকদার (২৪) এবং বদরগঞ্জ উপজেলার কুতুবপুর ইউনিয়নের নাটারাম খিয়ারপাড়া গ্রামের রনি মিয়া (২০)। নিহত ইউসুফ ও নাহিদ সম্পর্কে ভায়রা এবং রনি তাদের শ্যালক।

জানা যায়, তিনদিন আগে বদরগঞ্জের নাটারাম খিয়ারপাড়া গ্রামে দুই ভায়রা একসঙ্গে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে আসেন।

বদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুর রহমান জানান, মঙ্গলবার রাতে ইউসুফ আলী ও নাহিদ শিকদার মোটরসাইকেলে শ্যালক রনি মিয়াকে সঙ্গে নিয়ে বের হন। তাদের গন্তব্য ছিল পার্শ্ববর্তী মিঠাপুকুরের পদাগঞ্জ বাজার। কিন্তু বেপরোয়া গতির কারণে খিয়ারপাড়া এলাকায় পৌঁছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেলটি সড়কের পাশের একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা খায়। এতে ঘটনাস্থলেই মোটরসাইকেল চালক ইউসুফ আলী মারা যান। এসময় মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হন রনি মিয়া ও নাহিদ শিকদার। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান স্থানীয়রা। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভোরে ওই দুজন মারা যান।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *