শ্বশুরবাড়ি থেকে নিয়ে এসে চাঁদরাতে স্ত্রীকে খুন

সারাবাংলা

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চাঁদ রাতে (১৪ মে) স্বামীর হাতে খুন হয়েছেন কানিজ ফাতেমা (১৯) নামের এক গৃহবধূ। সাঁথিয়া উপজেলার পার করমজা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শনিবার(১৫ মে) সকালে পুলিশ স্বামী রাকিবুল ইসলামের (২৪) বাড়ির পাশে ইছামতি নদীর ক্যানেল থেকে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে। নিহত কানিছ ফাতেমা (১৯) বেড়া পৌর এলাকার আব্দুল কাদেরের মেয়ে। নির্যাতনে বাড়ি ছাড়া ফাতেমা কানিছের সঙ্গে ঈদ করবেন বলে রাকিবুল শ্বশুর বাড়ি থেকে স্ত্রীকে ফুঁসলিয়ে ডেকে এনেছিলেন।পুলিশ অভিযুক্ত স্বামী রাকিবকে গ্রেফতার করেছে। রাকিব ফেচুয়ান গ্রামের চাঁদু শেখের ছেলে। নিহত কানিজ ফাতেমার ভাই ফরিদ হোসেন জানান, দুই বছর আগে রাকিবুলের সঙ্গে বোনের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় সাড়ে পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক দেয়া হলেও ভগ্নিপতি তার প্রায় তাকে নির্যাতন করত। এজন্য তার বোন বাবার বাড়ি চলে যায়। বৃহস্পতিবার রাতে রাকিবুল কৌশল করে কানিজকে তার বাড়ি নিয়ে আসে। তিনি দাবি করেন, রাকিবুলের পরকীয়া সম্পর্ক ছিল। সেই কারণেই পরিকল্পিতভাবে ঈদের রাতে বোনকে নির্মমভাবে খুন করেছেন। বেড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অরবিন্দ সরকার জানান, ঈদের দিন কানিজের কোনো খোঁজ না পেয়ে স্বজনরা থানায় আসেন। তার ভাই অপহরণ মামলা দায়ের করেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে রাকিবুল জানান, চাঁদ রাত ১টার দিকে স্ত্রীকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করে।এরপর মৃতদেহ ইছামতি ক্যানেলের পানিতে কচুরিপানার মধ্যে ফেলে দেয়। পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সাঁথিয়া- বেড়া সার্কেল) জিল্লউর রহমান জানান, রাকিবুল একটি মেয়ের সঙ্গে কথা বলতেন। তবে তাদের মধ্যে পরকীয়া সম্পর্ক ছিল কিনা পুলিশ এখনো নিশ্চিত নন। বেড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অরবিন্দ সরকার জানান, লাশ থানায় নেয়া হয়েছে।এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে ওসি জানান।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *