শ্যামনগর থানায় সংবাদকর্মীর নামে মিথ্যা ডায়েরি

সারাবাংলা

শ্যামনগর (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি:
বিভিন্ন অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার ভুরুলিয়া ইউনিয়নের ৯০নং গৌরীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জি.এম আব্দুর রহমানের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগের তারিখ ১৪/১২/২০২০ইং। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিদ্যালয়ের পুরাতন ভবন এবং গাছ বিক্রি করেছে। বিষয়টি তিনি কাউকে জানাননি। এমনকি কোন টেন্ডারও তিনি করেননি। এলাকার জনগণের চাপের মুখে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, শিক্ষক ও অভিভাবক মন্ডলীদের সাথে ১৩/১২/২০২০ ইং তারিখে বিষয়টির সুরাহা করার জন্য বসাবসি হয়। উক্ত বসবসির মধ্যস্থতার এক পর্যায়ে তিনি গাছ ও ভবনের কিছু অংশ বিক্রি করে সাইক্লোন শেল্টার পাওয়ার আশায় তিনি উপরমহলে ঘুষ দিয়েছে বলে স্বীকার করেন। উপরোক্ত অভিযোগের বিষয়টি তদন্তের জন্য সরজমিনে যেয়ে ০১৭১৯-৭৬৯৭০৪ এই নম্বরে তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি উপজেলা প্রেসক্লাবে আছি আপনি প্রেসক্লাবে দেখা করেন। এছাড়া আনুসাঙ্গিক প্রয়োজনীয় কথা হয়। কিন্তু তিনি বিষয়টি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে এবং নিজের দুর্নীতি ঢাকতে সাংবাদিক আনোয়ারুলের নামে শ্যামনগর থানায় মিথ্যা চাঁদাবাজির ডাইরি করে। এমনটা দাবি করেছেন জাতীয় দৈনিক ঢাকা প্রতিদিন ও আঞ্চলিক পত্রিকা দৈনিক আজকের সারাদেশ এবং ৭১ বাংলা টেলিভিশনের শ্যামনগর উপজেলা প্রতিনিধি মোঃ আনোয়ারুল ইসলাম। বিষয়টি মিথ্যা হওয়ায় বিভিন্ন মহল সাংবাদিকের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। পাশাপাশি উক্ত দুর্নীতিবাজ প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন সুধীমহল। এ বিষয়ে শ্যামনগর থানার ওসি আলহাজ্ব নাজমুল হুদার সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বিষয়টি তদন্ত পূর্বক সুষ্ঠু ব্যবস্থা গ্রহনের প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *