শ্রীলংকার বিপক্ষে প্রোটিয়াদের রোমাঞ্চকর জয়

খেলাধুলা

ডেস্ক রিপোর্ট: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেআজ  শনিবার (৩০ অক্টোবর) দিনের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৪৬ বলে ৪৬ রানের ইনিংস খেলেন দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা।

আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শনিবার (৩০ অক্টোবর) শ্রীলঙ্কাকে চার উইকেটের ব্যবধানে হারিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ম্যাচটিতে প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভার খেলে সবগুলো উইকেট হারিয়ে ১৪২ রান করে। জবাবে মাত্র এক বল বাকি থাকতে ছয় উইকেট হারিয়ে লক্ষে পৌছাতে সমর্থ হয় প্রোটিয়ারা। ম্যাচের শেষ দিকে শ্রীলঙ্কার নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে দারুণ রোমাঞ্চ ছড়ায়। শেষ ওভারে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রয়োজন ছিল ১৫ রান। সেই রান ডেভিড মিলার ও কাগিসো রাবাদা মিলে করে ফেলেন।

ম্যাচটিতে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে তেম্বা ভাবুমা সর্বোচ্চ ৪৬ রান করেন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৩ রান করেন ডেভিড মিলার। তিনি ১৩ বল খেলে ২৩ রান করেন। অপরদিকে রাবাদা ৭ বল খেলে ১৩ রান করেন। শ্রীলঙ্কার হয়ে সর্বোচ্চ তিনটি উইকেট তুলে নেন ওয়ানিন্দু হাসরাঙ্গা।

এর আগে লঙ্কানদের বিপক্ষে বোলিং করার সময়ও বেশ দাপটেই খেলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এদিন ব্যাট হাতে প্রোটিয়া বোলারদের সামনে শুরুটা ভালো করতে পারেনি লঙ্কান ব্যাটসম্যানরা। ফলে সব উইকেট হারিয়ে ১৪২ রান তুলতে সক্ষম হয় শ্রীলঙ্কা। তবে দলের বিপদেও ব্যাট হাতে ঝড় তুলে পাথুম নিশানকা হাফসেঞ্চুরি পূর্ণ করেন।

এদিন আগে ব্যাট করে পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে ১ উইকেট হারিয়ে ৩৯ রান করে। কুশল পেরেরা ও পাথুম নিশানকার জুটি ছিল মাত্র ২০ রানের। চতুর্থ ওভারে ৭ রান করে কুশল বোল্ড হন আনরিখ নর্টিয়ের বলে। তারপর দারুণ জুটির আভাস দেন নিশানকা ও চারিথ আসালানকা। কিন্তু ৪১ রানের বেশি যোগ করতে পারেননি তারা দুজন মিলে। নবম ওভারে আসালানকা ডাবলস নিতে গিয়ে রান আউট হন।

ডিপ থেকে কাগিসো রাবাদার দারুণ থ্রোয়ে লঙ্কান ব্যাটসম্যান আসার আগেই স্টাম্প ভেঙে দেন উইকেটকিপার কুইন্টন ডি কক। ১৪ বলে ২ চার ও ১ ছয়ে ২১ রান করেন আসালানকা। পরের ওভারে ভানুকা রাজাপাকসা ৩ বল খেলে খালি হাতে ফেরেন তাবরাইজ শামসিকে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরেন। পাথুম নিশানকা ৫৮ বলে ৭২ রান করে আউট হলে আর কেউ ব্যাট হাগত জ্বলে ওঠতে পারেনি। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারালে বড় সংগ্রহ তুলতে ব্যর্থ হয় শ্রীলঙ্কা।

 

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *