শ্রেণিকক্ষ ধোয়া-মোছা হচ্ছে

সারাবাংলা

আরিফুর রহমান, নলছিটি থেকে
করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে প্রায় ১৮ মাস শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার পরে আগামী ১২ সেপ্টেম্বর খুলতে যাচ্ছে স্কুল ও কলেজ পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ধুয়ে মুছে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে স্কুল ও কলেজ।  বুধবার ঝালকাঠীর নলছিটির বেশ কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গিয়ে এমন চিত্র দেখা যায়। প্রতিষ্ঠান সংশ্লিষ্টরা বলছেন, দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার কারণে পাঠদান কর্মসূচি চালু করার আগে কিছু প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে হবে।
দেশে করোনা প্রাদুর্ভাবের কারণে ২০২০ সালের মার্চের মাঝামাঝি থেকে দেশে সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। কয়েক দফায় ছুটি বাড়িয়ে আগামী ১১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। তবে ১২ সেপ্টেম্বর থেকে স্কুল ও কলেজ পর্যায়ে এই ছুটি আর না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ফলে সেদিন থেকে শিক্ষার্থীদের পাঠদান কর্মসূচি আবারও চালু হতে যাচ্ছে। পৌর এলাকার নান্দিকাঠী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, সেখানকার শ্রেণিকক্ষে ধোয়া-মোছার কাজ চলছে। উপজেলার কুলকাঠি ইউনিয়নে আরেকটি বিদ্যালয় গিয়ে দেখা যায়, স্কুলের আশপাশ পরিষ্কার করা হচ্ছে। সেখানকার শিক্ষকরা জানান, অনেকদিন বন্ধ থাকার কারণে অনেক ময়লা-আর্বজনা দেখা গেছে, সেগুলোও আমরা পরিষ্কার করছি।
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধানরা বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিষ্ঠান খোলার জন্য সার্বিক প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো সরকারি নির্দেশনা মেনে পাঠদান অব্যাহত রাখতে সক্ষম হবে বলে আশা করছি। নলছিটি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. রুহুল আমিন বলেন, উপজেলার ১৬৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। সেগুলোতে আরও ১৫-২০ দিন আগে থেকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজ চলছে। এ ছাড়া সরকার ঘোষিত সব নির্দেশনা বাস্তবায়ন করার জন্য কাজ করে যাচ্ছি। এ বিষয়ে নলছিটি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মু. আনোয়ার আজীম বলেন, আগামী ১২ সেপ্টেম্বর নির্দেশনা মোতাবেক ক্লাসে পাঠদান কার্যক্রম শুরুর সব প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *