সবজির দামে স্বস্তি আলুতে অস্বস্তি

অর্থ-বাণিজ্য সারাবাংলা

ওমর ফারুক, রাজশাহী ব্যুরো : শীতকালীন সবজি বাজারে উঠতে শুরু করায় রাজশাহী মহানগর ও আশেপাশের উপজেলায় কমতে শুরু করেছে সবজির দাম। শীতকালীন বিভিন্ন ধরণের সবজির দাম কমলেও কমেনি আলুর দাম। এখনো নগরের বাজারগুলোতে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে আলু। আলুর দাম নিয়েই অস্বস্তিতে রয়েছেন ক্রেতারা। এখন শীতকালীন বিভিন্ন সবজি বাজারে খুব কম দামে বিক্রি হচ্ছে। প্রায় ১৫ থেকে ৩০ টাকা এবং ৬০ টাকা কেজির মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে। অগ্রিম দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৫৫ টাকা কেজির মধ্যে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ডিসেম্বর মাস শুরুর কয়েকদিন আগে থেকে রাজশাহী মহানগরীর বিভিন্ন বাজারে উঠতে শুরু করে শীতকালীন বিভিন্ন সবজি। মৌসুমের শুরুর দিকে এসব সবজির দাম কিছুটা বেশি থাকলেও আমদানি বাড়তে থাকায় কমতে শুরু করে সবজির দাম। এখন প্রায় সব ধরণের ক্রেতাদের আয়ত্বের মধ্যে বিক্রি হচ্ছে সবজি। আমদানি বেশি হওয়ায় সবজির দাম কমলেও এখনো কমেনি আলুর দাম। আলু এখনো প্রায় ৪০ থেকে ৪৫ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। আলু ব্যবসায়ীরা সরকারী নিদের্শনা শুরু থেকে এ পর্যন্ত না মেনেই নিজেদের ইচ্ছেমত আলু বিক্রি করেছে। এ নিয়ে ক্রেতাদের পক্ষ থেকেও ব্যাপক ক্ষোভ রয়েছে। কারণ সরকারী নির্দেশনা না মানলেও তাদের বিরুদ্ধে তেমন কোন আইনি ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। শুরুর দিকে দু’একজন ব্যবসায়ীকে জরিমানা বা নির্দেশনা দিয়েই দায় সেরেছে সংশ্লিষ্ট প্রশাসন।

বর্তমানে নগরীর বাজারগুলোতে প্রতি কেজি ফুলকপি বিক্রি হচ্ছে ১২ থেকে ১৫ টাকায়, বেগুন ২০ টাকা কেজি, বাঁধা কপি ১৫ থেকে ২০ টাকা কেজি বা ওজনের ধরণ অনুযায়ী পিস, মিষ্টি কুমড়া ৩০ টাকা কেজি, পটল ২৫ থেকে ৩০ টাকা কেজি, করলা ৬০ টাকা কেজি, সিম ২৫ থেকে ৩০ টাকা কেজি, করলা ৬০ টাকা কেজি, মুলা ১৫ থেকে ২০ কেজি, লাউ ছোট বড় ভেদে ২০ থেকে ৩০ টাকা, কাঁচা মরিচ ১৫ থেকে ২০ টাকা পোয়া, লাল শাক ১৫ থেকে ২০ টাকা কেজি, সবুজ শাকের দাম প্রায় একই। করলার দাম ছাড়া প্রত্যেক ধরণের সবজির দাম কম রয়েছে। এ ছাড়া নতুন উঠা দেশি পেঁয়াজ বাজারে ৪৫ থেকে ৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। পুরাতন দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৫৫ থেকে ৬০ টাকা কেজিতে। শুধু এখন আলুর দাম বাড়তি রয়েছে। অথচ ফুলকপি যখন বাজারে প্রথম উঠে তখন এর দাম প্রতি কেজি ৮০ থেকে ১০০ টাকা এবং বেগুন ৮০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছিলো। সবজি ব্যবসায়ীরা বলছেন, আগামী দিনে বেশি আমদানি হলে সবজির দাম সবজির দাম আরো কমে যাবে।

বাজারে সবজি কিনতে আসা ক্রেতাদের সাথে কথা বলেন, এখন সবজির দাম কিছুটা সহনিয় পর্যায়ে রয়েছে। আলুর দাম কমেনি। এ বিষয়েও সরকারের পক্ষ থেকে কড়া পদক্ষেপ নিতে হবে। আর আলু ব্যবসায়ীদের দাবি বাজারে নতুন আলু না আসা পর্যন্ত সংকট থাকবে। আলু কম থাকা এবং পাইকারি বাজারে বেশি দামের কারণে খুচরা বাজারেও এর প্রভাব পড়ছে। আমদানি বেশি হলে দাম কমে যাবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *