সরাইল-অরুয়াইল সড়ক বেহাল: জনদুর্ভোগ

সারাবাংলা

শেখ মো. ইব্রাহীম, সরাইল থেকে:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল-অরুয়াইল সড়কের চুন্টা সেতু থেকে ভুঁইশ্বর বাজার পর্যন্ত ৩ কিলোমিটার সড়ক দীর্ঘদিন সংস্কার অভাবে বেহাল অবস্থা। সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ চরম আকার ধারণ করছে। এই রাস্তাটি সংস্কার হলেও মধ্যের অংশ যথাযথভাবে কাজ না করায় এখন তা ব্যবহারের অনুপযোগী পড়েছে। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন কৃষকরা।
অরুয়াইল ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. আবু তালেব মিয়া বলেন, সড়কের এই বেহাল দশার কারণে চলাচল করতে মানুষের কষ্ট হচ্ছে। শিক্ষার্থী, ব্যবসায়ী, রোগীরা ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন জেলা-উপজেলায় যাতায়াত করে। এলাকার কেউ অসুস্থ হলে গ্লানযান (অ্যাম্বুল্যান্স) নিয়ে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। রোগীকে জরুরি হাসপাতালে নিতে গেলে ভোগান্তির সীমা থাকে না। গর্ভবতী নারী ও অসুস্থ বৃদ্ধ লোকদের নিয়ে চরম বিপাকে পড়তে হয়। তা ছাড়া প্রতি বছরে ফসল কাটার মৌসুমে বিভিন্ন কাজে গ্রামের শত শত মানুষ এ সড়ক দিয়ে হাওর থেকে বিভিন্ন পরিবহনের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় মালামাল সরবরাহ করেন। এলাকার কোথায় আগুন লাগলে সড়কটির বেহাল দশার কারণে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি প্রবেশ করতে পারে না। এতে অনেক পরিবারই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।
পাকশিমুল ইউপি চেয়ারম্যান মো. সাইফুল ইসলাম জানান, সড়কের ৩ কিলোমিটার অংশ ভেঙে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। জেলা এবং উপজেলার সঙ্গে যোগাযোগের একমাত্র সড়ক হচ্ছে এ সড়কটি। সড়কের বেশিরভাগ স্থান পরিণত হয়েছে মৃত্যুফাঁদে। প্রতিদিন হাজারো মানুষ যাতায়াত করে এই সড়ক দিয়ে। ভাঙা এই সড়কে আমাদের ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। গাড়িতে তো দূরের কথা, মানুষের পক্ষে হেঁটে চলাই দায় হয়ে পড়েছে। সড়কের দুরবস্থার জন্য এখানকার উৎপাদিত কৃষি পণ্য ও সার-বীজ পরিবহনে ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। কৃষি পণ্য সময়মতো বাজারজাত করতে না পারায় বিক্রি করতে হয় কম মূল্যে। এ দুর্ভোগ থেকে পরিত্রাণ চান এলাকাবাসী।
অরুয়াইল সিএনজি অটোরিকসা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. রাশেদ মিয়া জানান, এ সড়কটির খানাখন্দ ও ছোট বড় গর্ত দিয়ে সিএনজি চালিত অটোরিকশা ও মালবাহী যানবাহন চলাচল করতে চালক ও যাত্রীদের দুর্দশায় পড়তে হয়। যানবাহন আসা-যাওয়ার পর গাড়ি নষ্ট হয়ে যায়। এজন্য চালকরা এ রাস্তায় গাড়ি চালাতে চাই না। এতে প্রায় সময় ঘটছে দুর্ঘটনা। সরাইল উপজেলা (এলজিইডি) প্রকৌশলী মোসাম্মৎ নিলুফার ইয়াছমীন বলেন, সরাইল-অরুয়াইল সড়ক সংস্কারে কাজ ডিজাইন সিটে রয়েছে। অনুমোদন হলে অতি দ্রুত কাজ করা হবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *