সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদ উত্তাল জনপদ

সারাবাংলা

ডেস্ক রিপোর্ট:
নোয়াখালির কোম্পানিগঞ্জ উপজেলার দৈনিক সমাচার ও বার্তা বাজার ডট কমের সাংবাদিক মোজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে উত্তাল জনপদ। বিক্ষোভ, মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সারা দেশে ঢাকা প্রতিদিন-এর প্রতিনিধিদের পাঠানো সংবাদ তুলে ধরা হলো
নোয়াখালী প্রতিনিধি জানান, নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে চাপরাশির হাটে আওয়ামী লীগের বিবাদমান দু’পক্ষের সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কিরের খুনিদের গ্রেফতার ও বিচার দাবিতে মানববন্ধন-সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টায় নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন-সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএএসএফ) নোয়াখালী শাখা ও বাংলাদেশ রিপোটার্স ক্লাব-নোয়াখালী শাখা যৌথভাবে মানববন্ধন ও সমাবেশ আয়োজন করেন। এসময় বাংলাদেশ তৃণমূল সাংবাদিক কল্যাণ সোসাইটি- নোয়াখালী শাখা সংহতি প্রকাশ করে কর্মসূচিতে অংশ নেয়।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, সাংবাদিকরা কারো অনুসারী হতে পারে না। লাশ নিয়ে যেন কেউ রাজনীতি করতে না পারে সেদিকে সজাগ থাকতে হবে। সাংবাদিক হত্যা ও নির্যাতনের ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হওয়ায় এ ধরণের সহিংস ঘটনার পুনরাবৃত্তি হচ্ছে বলেও উল্লেখ করেন সাংবাদিক নেতারা। সুষ্ঠু নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিও জানানো হয়। বক্তারা আরও বলেন, যে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে তার যেন সুষ্ঠু তদন্ত হয়। খুনের সঙ্গে জড়িত সব আসামিদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার পাশাপাশি হত্যায় জড়িত ব্যক্তিদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি করেন।
বক্তারা এসময় স্বদেশ প্রতিদিন ও বার্তা ২৪’র জেলা প্রতিনিধি গিয়াস উদ্দিন রনির ওপর কাদের মির্জার উপস্থিতিতে তার অনুসারীদের হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। অন্যথায় কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলেও ঘোষণা দেন তারা।
প্রতিবাদ সমাবেশে জেলার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিড়িয়ার সাংবাদিক. সম্পাদক, জেলা প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন। বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ক্লাব- নোয়াখালী শাখা সাধারণ সম্পাদক মো. সোহেলের সঞ্চালনায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও বাংলাদেশ বেতারের প্রতিনিধি বখতিয়ার শিকদার, অর্ধসাপ্তাহিক অবয়ব পত্রিকার সম্পাদক আবুল হাসেম, দৈনিক যুগান্তর নোয়াখালী প্রতিনিধি মোঃ মনিরুজ্জামান চৌধুরী, নোয়াখালী বার্তার সম্পাদক ওহিদ উদ্দিন মুকুল,নোয়াখালী প্রেক্লাবের সাবেক সাধরন সম্পাদক ও দেশ রূপান্তরের প্রতিনিধি জামাল হোসেন বিষাদ, সতর্কবার্তা প্রত্রিকার সম্পাদক শাহ এমরান সুজন,সাপ্তাহিক নোয়াখালীর সম্পাদক মীর মোশাররফ হোসেন মিরণ, দৈনিক সফল বার্তার সম্পাদক লিয়াকত আলী খান,দৈনিক দিশারীর সম্পাদক ও ডেইলি সানের প্রতিনিধি আকাশ মোঃ জসিম, ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের জেলা প্রতিনিধি ও যায় যায় দিন প্রত্রিকার জেলা প্রতিানিধি আবু নাছের মঞ্জু, চ্যালেন ২৪ এর জেলা প্রতিনিধি অমৃত লাল সুমন ভোমিক, নিউজ ২৪ এর জেলা প্রতিনিধি ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের জেলা প্রতিনিধি আকবর হোসেন সোহাগ, প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক মাহবুবুর রহমান, ফোরাম-নোয়াখালী শাখা সাধারণ সম্পাদক মোহনা টিভির প্রতিনিধি মোজাম্মেল হোসেন কামাল, যুগ্ম সম্পাদক ও দৈনিক নতুন দিন ও আইবিএন টেলিভিমন নোয়াখালী প্রতিনিধি এআর আজাদ সোহেল, বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ক্লাব-নোয়াখালী শাখা সাবেক সভাপতি মো. ইদ্রিছ প্রমুখ।
জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে নিরাপদ নোয়াখালী চাই সংগঠন আয়োজিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে সংগঠনের সভাপতি সাইফুর রহমান রাসেল, নির্বাহী সদস্য মো. রাকিবুল ইসলাম, সিনবাদ সাকিল, রেবেকা নিপু। এসময় সাংবাদিক নেতারা সমাবেশে সংহতি প্রকাশ করে দোষিদের বিচারের দাবি জানান। মুজাক্কির হত্যার ঘটনায় মামলা নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের গোলাগুলিতে সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির নিহতের ঘটনায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে নিহতের বাবা অবসরপ্রাপ্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মাওলানা নোয়াব আলী মাস্টার বাদী হয়ে এ মামলাটি দায়ের করেন। কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি মীর জাহিদুল হক রনি মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহত মুজাক্কিরের বাবা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা একাধিক ব্যক্তিকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার পর থেকে জড়িতদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।
প্রসঙ্গত, সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরসহ আওয়ামী লীগের নেতাদের বিরুদ্ধে কাদের মির্জার অব্যাহত মিথ্যাচারের প্রতিবাদে গত শুক্রবার বিকেলে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চাপরাশিরহাট বাজারে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল। মিছিলটি বিকেল পাঁচটায় বাজারসংলগ্ন তাঁর বাড়ি থেকে বের হয়ে চাপরাশিরহাট পূর্ব বাজারে গেলে সেখানে কাদের মির্জার অনুসারীরা সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় সেখানে উপস্থিত পুলিশ দুই পক্ষকে দুই দিকে ধাওয়া করে এবং ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এঘটনার কিছুক্ষণ পর কাদের মির্জার নেতৃত্বে তার শতাধিক অনুসারী মোটরসাইকেল ও গাড়িযোগে চাপরাশিরহাট এলাকায় যান। একপর্যায়ে কাদের মির্জার সমর্থকেরা বাজারসংলগ্ন মিজানুর রহমানের বাড়িতে হামলা ও গুলি চালান। এ সময় কর্তব্য পালনকালে সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির গুলিবিদ্ধ হন। গুলিতে তাঁর মুখের নিচের অংশ এবং গলা ও বুক ঝাঁজরা হয়ে যায়। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হন আরও তিনজন। ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন বুরহানসহ আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে প্রথমে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখান থেকে সন্ধ্যায় নেওয়া হয় নোয়াখালী ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে। এরপর রাতেই অবস্থার অবনতি হলে বুরহানকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে চিকিৎসাধিন অবস্থায় রবিবার রাত ১০টা ৪০ মিনিটে বুরহানের মৃত্যু হয়। মুজাক্কির অনলাইন নিউজ পোর্টাল বার্তা বাজারের নিজস্ব প্রতিবেদক ছিলেন।
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি জানান, ঘাতকদের ছোড়া বুলেটাঘাতে নিহত সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদ, দোষীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টায় কুষ্টিয়া প্রেসক্লাব চত্বরে প্রবীন সাংবাদিক খাদেমুল ইসলামের সভাপতিত্বে সর্বস্তরের সাংবাদিকদের ব্যানারে আয়োজিত এই মানববন্ধনে বিভিন্ন সাংবাদিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা এই প্রতিবাদ কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে সংহতি জানান। এসময় বক্তরা বলেন, নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের গ্রুপিং দ্বন্দ্বে সৃষ্ট সংঘর্ষের চিত্রধারণ ও সংবাদ সংগ্রহের পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সংঘর্ষকারীদের ছোঁড়া গুলি তার গলা, মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে বিদ্ধ হয়; সেখান থেকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে ২৫০ শয্যা নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে রাতেই উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাংবাদিক মুজাক্কির মৃত্যু বরণ করেন। বুলেটবিদ্ধ হয়ে নিহত সাংবাদিক মুজাক্কির হত্যায় জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারসহ বিচার করতে হবে। মানবাধিকার ও গণমাধ্যমকর্মী হাসান আলীর সঞ্চালনায় এই প্রতিবাদ মানব বন্ধনে বক্তব্য দেন কুষ্টিয়া এডিটরস ফোরামের সভাপতি সাংবাদিক মজিবুল সেখ, সাংবাদিক ইউনিয়ন কুষ্টিয়া সভাপতি ও মাইটিভির কুষ্টিয়া প্রতিনিধি আব্দুর রাজ্জাক বাচ্চু, কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলমামুন সাগর, সাংবাদিক মুকুল খসরু, সংহতি জানিয়ে বক্তব্য দেনা সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন কুষ্টিয়ার জেলা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও লেখক কনক চৌধুরী, জাসদ নেতা কারশেদ আলম, আহম্মেদ আলী প্রমুখ।
কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি জানান, নোয়াখালির কোম্পানিগঞ্জের দৈনিক সমাচার ও বার্তা বাজার ডট কমের সাংবাদিক মোজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে কুড়িগ্রামে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের আয়োজনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের সংবাদ কর্মীরা অংশ নেয়। সাংবাদিক হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টন্তমূলক শাস্তির দাবি জানান বক্তারা। অন্যথায় বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। মানববন্ধনে বক্তব্য দেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট আহবায়ক চ্যানেল আই প্রতিনিধি শ্যামল ভৌমিক, মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আবু জাফর সোহেল রানা, দৈনিক কুড়িগ্রাম সম্পাদক এস এম ছানালাল বকসী, ঘাতক দালাল নির্মুল কমিটির সাধারন সম্পাদক দুলাল বোস, সাম্প্রতিক কুড়িগ্রাম সভাপতি শাহানুর রহমান, রবিন্দ্র সঙ্গীত সম্মিলন পরিষদ সাধারন সম্পাদক সাতকড়ি রায় নীলু, মহিলা পরিষদ নেত্রী সুব্রতা রায়, টেলিভিশন সাংবাদিক ফোরাম সাধারন সম্পাদক ইউসুফ আলমগীর, সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম রিগান, আলমগীর হোসাইন, বার্তা বাজার কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি সুজন মোহন্ত প্রমুখ। নোয়াখালির কোম্পানিগঞ্জে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে সন্ত্রাসীদের গুলিতে মারত্বকভাবে আহত হন তিনি। পরবর্তীতে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।
পটুয়াখালী প্রতিনিধি জানান, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম পটুয়াখালী জেলা শাখার পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় কমিটির নির্দেশে উদীয়মান সাংবাদিক বোরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যার বিচারের দাবি ও বাউফলে সাংবাদিক হারুন অর-রশিদ খাঁনের উপর সন্ত্রাসী হামলাকারীদের অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবিতে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের পটুয়াখালী জেলা শাখার পক্ষ থেকে প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১২ টায় পটুয়াখালী জেলা শাখা কার্যালয় সবুজবাগ মোড়ে ঘন্টাব্যাপী প্রতিবাদ সমাবেশের কর্মসূচি পালন করা হয়। প্রতিবাদ কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের পটুয়াখালী জেলা শাখার সহ- সভাপতিঃ মোঃ আমির হোসেন, সহ- সভাপতিঃ এস আল আমিন খাঁন, সাধারন সম্পাদকঃ মোঃ বাদল হোসেন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মেহেদী হাসান বাচ্চু, দপ্তর সম্পাদকঃ এ জেড এম উজ্জ্বল, ক্রিয়া বিষয়ক সম্পাদকঃ মোঃ আরিফ হোসেন টিটু, তথ্য বিষয়ক সম্পাদকঃ মোঃ রিয়াজ হোসেন, মহিলা বিষয়ক সম্পাদকঃ মাহিনুর আক্তারর অর্থ বিষয়ক সম্পাদকঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন, নির্বাহী সদস্য, মোঃ জাহিদ, আব্দুল ওয়াদুদ, রাশেদুল ইসলাম, আব্দুল্লাহ আল-মামুন, মোঃ মোস্তফা কামাল খাঁন, এসএম নুরুন্নবী, পারভেজ মাহমুদ, আসলাম হাওলাদার ও অন্যান্য সদস্যবৃন্দ। কর্মসূচিতে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর কাছে সাংবাদিক নিপিড়ন নির্যাতনের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম পটুয়াখালী জেলা শাখা।এছাড়াও কোম্পানিগন্জের উদীয়মান সাংবাদিক বাংলাদেশ সমাচার ও বার্তা বাজারের প্রতিনিধি বোরহান উদ্দিন মুজাক্কিরকে গুলি করে হত্যাকারীদের অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে দ্রুত বিচার ও বাউফল প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম পটুয়াখালী জেলা শাখার সভাপতি বাংলাদেশ প্রতিদিনের বাউফল প্রতিনিধি হারুন অর-রশিদ খানের উপরে সন্ত্রাসী হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানানো হয়।সঙ্গে বাংলাদেশের সকল সাংবাদিক ভাইদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহব্বাহ জানানো হয়।
বরগুনা প্রতিনিধি জানান, সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কিরকে নির্মমভাবে গুলি করে হত্যায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বরগুনায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টায় বরগুনা সাংবাদিক ইউনিয়ন চত্বরে এ মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম (বিএমএসএফ) এর কেন্দ্রীয় কমিটি কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের সাথে একমত পোষণ করে বরগুনা রিপোটার্স ইউনিটি ও বরগুনা সাংবাদিক ইউনিয়নের মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে। মানববন্ধনে বক্তারা জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জন্য সরকারের কাছে অনুরোধ জানান। অন্যথায় পরবর্তীতে কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি প্রদান করেন। বার্তা বাজারের বরগুনা প্রতিনিধি মেহেদী হাসানের সভাপতিত্বে এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন,বরগুনা রিপোটার্স ইউনিটির সভাপতি এবং আমাদের সময়ের বরগুনা প্রতিনিধি মাহাবুবুল আলম মান্নু, বরগুনা সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ন সাঃ সম্পাদক এবং সময় টেলিভিশনের স্টাফ রিপোর্টার এমএ আজীম, দ্য বাংলাদেশ টুডে ও দৈনিক লাখো কন্ঠ পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি মোঃ জহিরুল হক, দৈনিক জনবাণী পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি মোঃ সানাউল্লাহ, সাংবাদিক সাইফুল রাফিন, রাবেয়া ইসলাম সহ স্থানীয় সাংবাদিকরা।
সিরাজদিখান (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি জানান, মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান প্রেসক্লাবের আয়োজনে নোয়াখালির সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির হত্যার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় প্রেসক্লাবের সামনের রাস্তায় এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বার বার সাংবাদিক হত্যা, অত্যাচার, নির্যাতন ও নিপিড়ন করা হচ্ছে। এগুলোর বিচার ও জড়িতদের আইনের আওতায় এনে সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। আর যেন কোন ভাই খুন না হয়। আর যেন প্রতিবাদ মানববন্ধনে রাস্তায় কোন সাংবাদিকদের দাঁড়াতে না হয়। সাগর-রুনিসহ সকল হত্যাকান্ডের বিচার দাবি জানানো হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রেসক্লাব সভাপতি ইমতিয়াজ বাবুল, সাধারণ সম্পাদক জাবেদুর রহমান জুবায়ের, সাবেক সভাপতি সামসুজ্জামান পনির, সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম বাবুল, যুগ্ন সম্পাদক নাছির উদ্দিন, যুগ্ন সম্পাদক সালাহ উদ্দিন সালমান, সাবেক দপ্তর সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক রিয়াজ মামুদ মান্নান, ইসমাইল খন্দকার, প্রচার সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম চমক, দপ্তর সম্পাদক আজাদ বিন আজম নাদভী। এছাড়া সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হামিদুল ইসলাম লিংকন, মিজানুর রহমান, আজিম হাওলাদার, আরিফ হোসেন হারিস, মো. আমির ঢালী, আহসানুল ইসলাম আমিনসহ অনেকে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *