সাতক্ষীরায় ষষ্ঠদিনের লকডাউন স্বাস্থ্যবিধি মানাতে অভিযান অব্যহত

সারাবাংলা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরায় ঢিলেঢালা পালন করা হচ্ছে সরকার ঘোষিত সর্বাত্মক লকডাউনের ৬ষ্ঠ দিন। প্রশাসনের কঠোর নজনদারি উপেক্ষা করে  সোমবার সকাল থেকে শহরের প্রধান প্রধান সড়কে জনসমাগম অন্যান্য দিনের তুলনায় বেশী লক্ষ্য করা গেছে। এছাড়া শহরের সুলতানপুর বড়বাজার, পুরাতন সাতক্ষীরা কাঁচা বাজার, টাউনবাজারসহ বিভিন্ন বাজার গুলোতে মানুষ সামাজিক দূরত্ব না মেনে কেনা কাটা করছেন। এদিকে লকডাউনের মধ্যে দোকানপাট খোলারাখা, সরকারের দেয়া স্বাস্থ্যবিধি না মানাসহ বিভিন্ন অপরাধে জেলার বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান অব্যহত রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সাতক্ষীরার ১১টি অভিযানে ৪৪ টি মামলায় ৩৮ হাজার ২০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে বলে জানান এনডিসি মোঃ আজাহার আলী।
এদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ৬ ঘণ্টার ব্যবধানে এক নারীসহ দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আজ পর্যন্ত জেলায় মারা গেছেন মোট ৩৯ জন। আর ভারাসটির উপসর্গ নিয়ে গতকাল সোমবার পর্যন্ত মারা গেছেন আরও অন্তত ১৬৩ জন। গতকাল সোমবার ভোর রাত দেড় টা থেকে সকাল সাড়ে ৭ টার মধ্যে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। মৃত ব্যক্তিরা হলেনÑ সাতক্ষীরা শহরের পলাশপোল এলাকার মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে মোশারফ হোসেন (৮৬) ও যশোর জেলার ঝিকরগাছা থানার খোরশা গ্রামের কামাল হোসেনের স্ত্রী লিপি খাতুন (৩৫)। মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, করোনা আক্রান্ত হয়ে গত ৮ এপ্রিল মোশারাফ নামের ওই বৃদ্ধ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা পজিটিভ ইউনিটে ভর্তি হন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ভোর রাত দেড়টার দিকে মারা যান। অন্যদিকে করোনা আক্রান্ত হয়ে মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনটে সকাল সাড়ে ৭ টার দিকে মারা যান লিপি নামের ওই নারী। তিনি করোনা আক্রান্ত হয়ে গত ১২ এপ্রিল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়েত বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, স্বাস্থ্যবিধি মেনে মৃত ওই দুই ব্যক্তির লাশ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *