সাভারে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ

সারাবাংলা

এম এ হালিম, সাভার থেকে
সাভারে এক তরুনীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ডেকে নিয়ে ধর্ষন করার অভিযোগ উঠেছে তার প্রেমিকের বিরুদ্ধে। এঘটনায় পুলিশ অভিযুক্ত ওই প্রেমিকসহ ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। পরে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে সোমবার দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে রবিবার রাতে উপজেলার হেমায়েতপুর নতুনপাড়া এলাকার একটি নির্মানাধীন ভবনের তিন তলায় এ ধর্ষনের ঘটনা ঘটেছে। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা থানার বিষ্ণপুর গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে সাকিবুর রহমান রিফাত (২০), চাপাইনববাগঞ্জ জেলার গোমস্তাপুর থানার মিনি বাজার গ্রামের মমিন মিয়ার ছেলে মোঃ বাবু(২৬), একই থানার বমপুর গ্রামের তহুরুল ইসলামের ছেলে ইউসুফ আলী(১৯), একই জেলার ভোলাহাট থানার পীরগাছি বাজার এলাকার মহিবুল হকের ছেলে সোহেল রানা (৩০), একই থানার বারইপাড়া গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে মাইনুল ইসলাল (৩০) ও সদর থানার নামোরাই হাজিপাড়া গ্রামের নুরুল হুদার ছেলে মোকারম মিয়া (২৬)।থানা পুলিশ জানায়, বেশ কিছুদিন ধরে মোবাইল ফোনের মাধ্যমের ভুক্তভোগী তরুনীর সঙ্গে অভিযুক্ত ধর্ষক সাকিবুর রহমান রিফাতের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। সেই সুত্র ধরে রবিবার বিকেলে সাভারের হেমায়েতপুর এলাকায় প্রেমিকাকে ডেকে নিয়ে আসে রিফাত। পরবর্তীতে তাকে বিভিন্ন স্থানে ঘুরিয়ে রাতে হেমায়েতপুর নতুনপাড়া এলাকায় একটি নির্মানাধীন ভবনে নিয়ে যায়। সেখানে তার বন্ধুদের সহায়তায় ওই তরুনীকে জোরপূর্বক ধর্ষন করে সাকিবুর রহমান রিফাত। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ভুক্তভোগী তরুনীকে উদ্ধার করেন এবং ঘটনার সঙ্গে জড়িত ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেন।সাভার মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন এন্ড কমিউনিটি পুলিশ)মোহাম্মদ আল-আমিন তালুকদার বলেন, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে রবিবার রাতে সাভারের কলমা এলাকা থেকে ওই নারীকে ডেকে নিয়ে আসে প্রেমিক সাকিবুর রহমান রিফাত। পরে তাকে হেমায়েতপুর এলাকার একটি নির্মানাধীন ভবনে নিয়ে ধর্ষন করে। এঘটনায় ধর্ষক ও তার পাঁচ সহযোগীসহ ৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পরে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে সোমবার দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *