সিলেটে ব্যাংক কর্মকর্তাকে পিটিয়ে হত্যা

সারাবাংলা

সিলেট ব্যুরো:
সিলেটে ব্যাংক কর্মকর্তা মওদুদ আহমদ হত্যা মামলায় প্রধান আসামি অটোরিক্সা চালক নোমান হাসনুকে জেল হাজতে প্রেরণ করেছেন আদালত। পাশাপাশি ঘটনার বিস্তারিত জানতে নোমান হাছনুরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হাসনুরের ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে তাকে শ্রমিক সংগঠনের নেতাদের সহযোগিতায় সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ১ম আদালতে আত্মসমর্পণ করালে আদালত তাকে জেলহাজতে পাঠায়। এসময় আসামি পক্ষের আইনজীবী জামিন প্রার্থনা করলে বিচারক সাইফুর রহমান সে আবেদন নামঞ্জুর করেন।
বিবাদী পক্ষের আইনজীবী দেলোয়ার হোসেন দিলু বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আসামি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ায় নিজে এসে আত্মসমর্পণ করেছেন। তবে শুনানির পর আদালত তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন। এর আগে তাকে ঢাকার কাছে কোন একটা জায়গা থেকে মামলার প্রধান আসামি নোমান হাসনুকে নিয়ে আসেন শ্রমিক নেতারা। পরে তারা তাকে মহানগর হাকিম আদালত ১ এ সোপর্দ করেছেন। শ্রমিক নেতারা জানান, আইনজীবীর মাধ্যমে নোমান হাসনুরকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। বাকী সিদ্ধান্ত আদালত গ্রহন করবেন। উল্লেখ্য, গত শনিবার সন্ধ্যায় নগরীর কোর্ট পয়েন্ট এলাকায় ভাড়া নিয়ে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে ব্যাংক কর্মকর্তা মওদুদ আহমদকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে সিএনজি অটোরিকশা চালক নোমান ও তার সহযোগীরা। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পর তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। পরদিন নিহতের ভাই বাদী হয়ে কোতোয়ালী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। এঘটনায় আন্দোলনে ফুঁসে ওঠেন সিলেটের ব্যাংকার ও নাগরিক প্রতিনিধিরা। গত মঙ্গলবার সারা দিন সিলেটের বিভিন্ন জায়গায় ব্যাংক কর্মকর্তারা বিক্ষোভ করেন। এমনকি ৪৮ ঘণ্টা সময় বেঁধে দিয়ে আসামি গ্রেফতার না হলে কর্ম্বিরতির হুঁশিয়ারি দেন তারা।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *