সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে মাসব্যাপী মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র উৎসব

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক : মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভ ও অরুণ ফিল্ম সোসাইটির যৌথ আয়োজনে মাসব্যাপী মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র উৎসব প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয় ১২টি জেলার ১৭ টি উপজেলায়। ৮ নভেম্বর মতলব উপজেলা মিলনায়তনে চলচ্চিত্র উৎসবে উদ্বোধনী হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ড. শামসুল আলম, প্রতিমন্ত্রী পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়, বিশেষ অতিথি ছিলেন জনাব মো. নূরুল আমিন, মাননীয় সংসদ সদস্য, মো. নিজামূল কবীর, মহাপরিচালক, বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভ, সম্মানিত অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ কুদ্দুস, চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, এছাড়াও ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক,সভাপতিত্ব করেন গাজী শরিফুল হাসান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচ্চিত্র উৎসবে ৩০টি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ও জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উপর নির্মিত ১১ টি প্রামাণ্যচিত্র ও মুক্তিযুদ্ধের উপর নির্মিত ৭টি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শীত হবে। আজ উৎসব উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রদর্শীত হয় তারেক মাসুদ পরিচালিত মুক্তির গান, জহির রায়হান পরিচালিত স্টপ জেনোসাইড ও হুমায়ন আহমেদ পরিচালিত আগুনের পরশমনি।

মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচ্চিত্র উৎসবের চলচ্চিত্র প্রদর্শনী হবে চাঁদপুর, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, পাবনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, সিরাজগঞ্জ, জামালপুর, ময়মনসিংহ, পাবনা, মেহেরপুর সহ ১২ জেলার ১৭টি উপজেলায় মাসব্যাপী বিভিন্ন জেলার উপজেলায় মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচ্চিত্র উৎসব মুক্তিযুদ্ধের সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভ ও অরুণ ফিল্ম সোসাইটির যৌথ আয়োজনে মাসব্যাপী মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র উৎসব প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয় ১২টি জেলার ১৭ টি উপজেলায়।

৮ নভেম্বর মতলব উপজেলা মিলনায়তনে চলচ্চিত্র উৎসবে উদ্বোধনী হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ড.শামসুল আলম, প্রতিমন্ত্রী পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়, বিশেষ অতিথি ছিলেন মো. নূরুল আমিন, মাননীয় সংসদ সদস্য, মো. নিজামূল কবীর, মহাপরিচালক, বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভ, সম্মানিত অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ কুদ্দুস, চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, এছাড়াও ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক, সভাপতিত্ব করেন গাজী শরিফুল হাসান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচ্চিত্র উৎসবে ৩০টি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ও জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উপর নির্মিত ১১ টি প্রামাণ্যচিত্র ও মুক্তিযুদ্ধের উপর নির্মিত ৭টি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শীত হবে। আজ উৎসব উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রদর্শীত হয় তারেক মাসুদ পরিচালিত মুক্তির গান, জহির রায়হান পরিচালিত স্টপ জেনোসাইড ও হুমায়ন আহমেদ পরিচালিত আগুনের পরশমনি। মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক চলচ্চিত্র উৎসবের চলচ্চিত্র প্রদর্শনী হবে চাঁদপুর, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, পাবনা, বরিশাল, পটুয়াখালী, সিরাজগঞ্জ, জামালপুর, ময়মনসিংহ, পাবনা, মেহেরপুর সহ ১২ জেলার ১৭টি উপজেলায়।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *