সুস্থ আছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার অবস্থা নিয়ে হোয়াইট হাউসের স্টাফদের কাছ থেকে বিপরীতধর্মী বক্তব্য এসেছে। হোয়াইট হাউসের চিফ অব স্টাফ মার্ক মিডোস জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টা কঠিন সময় পার করেছেন ট্রাম্প, পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা তার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

যদিও হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর ট্রাম্প শনিবার জানান, তিনি হাসপাতালে আসার আগে অসুস্থ বোধ করছিলেন তবে এখন তিনি ভালো আছেন। একইদিনে ট্রাম্পের ব্যক্তিগত চিকিৎসক শন কনলি বলেন, এখন পর্যন্ত ট্রাম্পকে অক্সিজেন দিতে হয়নি এবং অনেকটাই সুস্থ রয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, ট্রাম্পের ব্যক্তিগত চিকিৎসক শন কনলির বক্তব্যের কিছুক্ষণ পর দেয়া চিফ অব স্টাফ মার্ক মিডোসের বক্তব্য সম্পূর্ণ বিপরীত। কারণ শন কনলি ট্রাম্পের সুস্থতার কথা জানালেও মিডোস সাংবাদিকদের বলেন, গত ২৪ ঘণ্টা প্রেসিডেন্টের অবস্থা খুবই উদ্বেগজনক ছিল। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা তার চিকিৎসার জন্য আরও গুরুত্বপূর্ণ হবে। এখনও তিনি পুরোপুরি সুস্থতার পথে নেই।

হাসপাতাল সূত্রের খবর, সামান্য জ্বর-সর্দি রয়েছে ট্রাম্পের। নাক বন্ধ। কিন্তু তার বয়স যেহেতু ৭৪, সঙ্গে ওবেসিটিও রয়েছে, তাই বিশেষজ্ঞরা চিন্তিত।

শন কনলি জানিয়েছেন, ট্রাম্পকে ইতোমধ্যে রেমডেসিভিরের পাঁচ দিনের কোর্সের একটি ডোজ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া তাকে রেজেনেরন ফার্মাসিটিক্যালের পরিক্লোনল অ্যান্ডিবডি ককটেল দেওয়া হয়েছে। ওই ওষুধটি শরীরে ভাইরাসের বিস্তার হ্রাস করে দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠতে সহায়তা করে। পাশাপাশি জিংক, ভিটামিন ডি, ফ্যামোটিডিন, মেলাটোনিন ও অ্যাসপিরিন দেওয়া হচ্ছে ট্রাম্পকে।

রেগেনেরন অ্যান্টিবডি ককটেল এখনও ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের পর্যায়ে রয়েছে। বাজারে ছাড়ার অনুমতি দেয়নি আমেরিকার ফুড অ্যান্ড ড্রাগ কন্ট্রোল সংস্থা। আর কোনো ওষুধ বা থেরাপি কাজ না করলেই পরীক্ষামূলকভাবে কোভিড-আক্রান্তকে এই ওষুধ দেওয়া হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে।

বৃহস্পতিবার কোভিড পজেটিভ হওয়ার কথা টুইট বার্তায় জানিয়েছিলেন ট্রাম্প। স্ত্রীসহ তিনি টন মেরিল্যান্ডের ওয়াল্টার রিড ন্যাশনাল মিলিটারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। তবে তার অবস্থার বিস্তারিত হোয়াইট প্রকাশ করেনি।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *