সেতুর সংযোগ সড়কে ধস

সারাবাংলা

ইমরুল হাসান বাবু, টাঙ্গাইল থেকে
টাঙ্গাইল সদর উপজেলার দাইন্যা ইউনিয়নের চারাবাড়ি সংলগ্ন ধলেশ্বরী নদীর উপর নির্মিত সেতুর সংযোগ সড়কটি দ্বিতীয় বারের মত অর্ধেকের বেশি ধসে পড়েছে। ফলে পশ্চিমাঞ্চলের সঙ্গে টাঙ্গাইল শহরের সাথে সড়ক যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন সদর উপজেলার চরাঞ্চলের কাতুলী, হুগড়া, কাকুয়া, মাহমুদ নগর ও নাগরপুরের ভাড়রা ইউনিয়নের লক্ষাধিক মানুষ চলাচল করে।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রাস্তা ধ্বসে যাওয়ার ফলে সেতুর উপর দিয়ে মানুষ হেটে চলাচল করছে। সিএনজি ও ব্যাটারি চালিত অটো চালকরা উভয় পাড়ে যানবাহন পার্কিং করে রেখেছে। শ্রমিকরা জিও ব্যাগে বালু ভর্তি করে রাস্তা সংস্কার চেষ্টা করছে। স্থানীয়রা জানান, বর্ষার শুরু থেকে সেতুর ৫ শত গজ দক্ষিণে কয়েকটি অবৈধ ড্রেজারের মাধ্যমে নদী থেকে মাটি তোলা হচ্ছে। সেই মাটি ভারি ট্রাক দিয়ে সেতুর পশ্চিম পাশে লিংক রাস্তা দিয়ে আনা নেওয়া সময় ভাঙনের স্থানে প্রচুর চাপ পড়ে। ফলে ওই রাস্তার মাটি ধসে গিয়ে টাঙ্গাইল-তোরাপগঞ্জ সড়কের যোগাযোগ ব্যাহত হয়েছে। অবৈধ ড্রেজিং এর বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনকে জানালো প্রয়োজনীয় কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি।
এ বিষয়ে কাতুলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ইকবাল আলী বলেন, মাটির ট্রাক মোড় নেওয়ার সময় অধিক চাপে বার বার রাস্তাটি ধসে পড়েছে। ফলে পশ্চিম টাঙ্গাইলের মানুষ খুব কষ্টে শহরের সাথে যাতায়াত করছে। অবৈধ ড্রেজিং এর বিষয়ে প্রশাসনকে অতিহিত করা হলেও বন্ধ হয়নি। টাঙ্গাইল এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী গোলাম আজম বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে রাস্তা সচল করার জন্য এলজিইডির পক্ষ থেকে জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে। অপর দিকে স্থায়ী সমাধানের জন্য ঢাকায় প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *