আইপিএলে সেরাটা দেখানোর সুযোগ মনে করছেন সালমা-জাহানারারা

খেলাধুলা

স্পোর্টস ডেস্ক: মহিলা আইপিএল খ্যাত ভারতের ওমেন্স টি-২০ চ্যালেঞ্জে অংশ নিতে যাওয়া বাংলাদেশের দুই নারী ক্রিকেটার সালমা খাতুন ও জাহানারা আলম চান নিজ নিজ দলের জয়ে ভুমিকা রাখতে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই এই টুর্নামেন্টের আয়োজক।

সংবাদমাধ্যমকে সালমা বলেন, ‘আইপিএলে অংশগ্রহনের সুযোগ পেয়ে আমি খুবই খুশি। এমন বড় এক টুর্নামেন্টে অংশগ্রহনের সুযোগ পেয়ে আমি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছি। সুতরাং আমি অবশ্যই নিজের দক্ষতা প্রমানের চেস্টা করব।’

জাহানারা বলেন, ‘আইপিএল একটি বড় মঞ্চ। আমি মনে করিনা সবার এখানে খেলার সুযোগ হয়। আমি এমন সুযোগ পেয়ে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছি। নিজের সেরাটা দেখানোর জন্য এটি একটি বড় সুযোগ। সেখানে বিশ^ সেরাদের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সুযোগ রয়েছে। আশা করি সেখান থেকে প্রাপ্ত অভিজ্ঞতা আমি আমার দেশে এসে সতীর্থদের সঙ্গে ভাগ করে নিতে পারব। এমন টুর্নামেন্টে অংশগ্রহনের মাধ্যমে আমার ভবিষ্যত ক্যারিয়ার কয়েক ধাপ এগিয়ে যাবে বলে আমি আশা করছি।’

টুর্নামেন্টে জাহানারা ভেলোসিটির হয়ে এবং অল রাউন্ডার সালমা খাতুন ট্রেইলব্লেজার্সের হয়ে অংশ নিবেন বলে নিশ্চিত করেছে বিসিসিআই। আগামী ৪ নভেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুরু হবে এই টুর্নামেন্ট। টুর্নামেন্টের অপর ক্লাবটির নাম সুপারনোভাস। উদ্বোধনী ম্যাচে ভেলোসিটির মোকাবেলা করবে সুপারনোভাস।

টুর্নামেন্টে সালমা প্রথম অংশগ্রহন করলেও দ্বিতীয়বারের মত অংশ নিতে যাচ্ছেন জাহানারা। গত আসরেও অংশগ্রহন করেছিলেন তিনি। তিন দলের সিঙ্গেল লীগের এই টুর্নামেন্ট শেষ হবে ৯ নভেম্বর।

টুর্নামেন্টে অংশ নিতে আগামীকাল দেশ ছাড়ছেন সালমা ও জাহানারা। এর আগে দুইজনকেই কোভিড-১৯ পরীক্ষার মুখোমুখি হতে হয়েছে এবং ফলাফল নেগেটিভ এসেছে।

সালমা বলেন, ‘আইপিএলকে সামনে রেখে ভাল প্রস্তুতি নিয়েছি। আমি এখানেই অনুশীলন করেছি। জিমে কাজ করার পাশাপাশি রানিং ও ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছি। ফ্লাড লাইটে অনুশীলনেরও সুযোগ করে দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড, যেটি বেশ ভাল কাজ দিবে। প্রস্তুতি মোটামুটি ভাল।’

জাহানারা বলেন, ‘দ্বিতীয়বারের মত আমি আইপিএলে খেলতে যাচ্ছি। ফের ভেলোসিটির হয়ে খেলার সুযোগ পেয়ে আমি কৃতজ্ঞ। এবার আমি আগের অভিজ্ঞতা কাজে লাগাতে চাই। নিজ উদ্যোগে আমি দলীয় জয়ে ভুমিকা রাখার চেস্টা করব।’

তিনি আরো বলেন, ‘প্রস্তুতি অনেক ভাল হয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে বিসিবি আমাদের যে সুযোগ করে দিয়েছে তা সত্যিই ভাল। অনুশীলনের জন্য তারা দুটি ফ্লাড লাইট দিয়েছে, কোচ দিয়েছে। মাহবুব আলী জাকি স্যারের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ হয়েছে। আশা করি আইপিএলে আমি এইসব শিক্ষা সঠিকভাবে কাজে লাগাতে পারব।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *