সোলাইমানি হত্যা : ওয়াশিংটন-তেহরানের মধ্যে উত্তেজনা

আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সোলাইমানি হত্যাকাণ্ডের এক বছর পূর্তিতে যুক্তরাষ্ট্রকে কঠিন হুশিয়ারি দিয়েছে ইরান। জেনারেল কাসেম সোলাইমানি ছিলেন ইরানের কুদস ফোর্সের সাবেক কমান্ডার। সোলাইমানিকে হত্যার মধ্য দিয়ে ইরানকে ‘প্রতিরোধ’ লড়াই থেকে পিছু হটানো যাবে না বলে সতর্ক করেছেন দেশটির বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর কুদস ফোর্সের বর্তমান কমান্ডার ইসমাইল কিয়ানি।

শুক্রবার কমান্ডার কাসেম সোলাইমানি হত্যার বছরপূর্তি উপলেক্ষ্যে তেহরান ইউনির্ভাসিটিতে তার স্মরণ সভার অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন কিয়ানি।

যুক্তরাষ্ট্রকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, তোমরা যে অপরাধ করেছো তার মাধ্যমে বিশ্বের সব স্বাধীনতাকামী মানুষকে নতুন এক দায়িত্বের দায়ে আবদ্ধ করে ফেলেছো। কাজেই যুক্তরাষ্ট্রের ভেতর থেকেই যদি কেউ এই অপরাধের প্রতিশোধ নিতে চায় তাহলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

গত ৩ জানুয়ারি বাগদাদ বিমানবন্দরে মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত হন ইরানের কুদস বাহিনীর প্রধান জেনারেল কাসেম সোলাইমানি।

কুদস ফোর্সের সাবেক কমান্ডার জেনারেল কাসেম সোলাইমানির হত্যাকাণ্ডের এক বছর পূর্তিকে সামনে রেখে ওয়াশিংটন ও তেহরানের মধ্যে উত্তেজনা বেড়ে যায়।

গত বুধবার পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম দুটি মার্কিন বি-৫২ বোমারু বিমান আমেরিকা থেকে আকাশে উড়ে মধ্যপ্রাচ্যের আকাশে টহল দিয়ে আবার আমেরিকায় ফিরে গেছে।

ওয়াশিংটন ঘোষণা করেছে, ইরানকে সতর্ক করার জন্য এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

ইরানের সামরিক উপদেষ্টা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হোসেইন দেহকান এক টুইট বার্তায় বলেছেন, মার্কিন কোনো হুমকি-ধমকি পরোয়া করে না ইরান। এ অঞ্চলের যে কোনো মার্কিন ঘাঁটি এখন আমাদের ক্ষেপণাস্ত্রের নাগালের মধ্যে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *