স্থগিত এইচএসসি পরিক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত ৩০ সেপ্টেম্বর

শিক্ষাঙ্গন

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনাভাইরাস পরিস্থিতির মধ্যে ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষাজীবন নিয়ে অভিভাবকদের মধ্যে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। ইতোমধ্যে দুই স্তরের পাবলিক পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। স্থগিত আছে এইচএসসি পরীক্ষাও। এসব বিষয় নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। বুধবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে শিক্ষামন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করবেন বলে মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের জানিয়েছেন।

মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা বলেন, সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি আরও বাড়বে কি-না, সে বিষয়ে ঘোষণা আসতে পারে। এছাড়া স্থগিত হয়ে থাকা এইচএসসি পরীক্ষা নিয়েও কথা বলবেন শিক্ষামন্ত্রী।

গত ১ এপ্রিল থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে তা স্থগিত রয়েছে। বছর প্রায় শেষ হয়ে আসায় এ পরীক্ষা নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের।

করোনা মহামারির কারণে এবার পঞ্চমঅষ্টম শ্রেণির সমাপনী পরীক্ষা হচ্ছে না। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এসব শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মূল্যায়ন করে ওপরের শ্রেণিতে উন্নীত করার কথা রয়েছে। তবে চার শর্ত দিয়ে আগামী অক্টোবর ও নভেম্বর মাসে ব্রিটিশ কাউন্সিলের পরিচালনায় ইংরেজি মাধ্যমের শিক্ষার্থীদের ‘ও’ এবং ‘এ’ লেভেলের পরীক্ষা নেয়ার অনুমতি দিয়েছে সরকার। এক্ষেত্রে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের স্বাস্থ্যবিধি এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইনগুলো কঠোরভাবে অনুসরণ করতে হবে। সারাদেশে ৩৫টি ভেন্যুতে প্রতিদিন সর্বোচ্চ এক হাজার ৮০০ পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা নেয়া যাবে এবং প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে কমপক্ষে ছয় ফুট দূরত্বে বসাতে হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, পরীক্ষা চলাকালে কোনো পরীক্ষার্থী কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হলে ব্রিটিশ কাউন্সিলকে এর দায়-দায়িত্ব বহন করতে হবে। পরিস্থিতি বিবেচনায় যেকোনো সময় সরকার ‘জনস্বার্থে’ পরীক্ষা গ্রহণের অনুমতি বাতিল করতে পারবে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *