স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বিজয় দিবসে ৫০ বার তোপধ্বনি

জাতীয় লিড ১

ডেস্ক রিপোর্ট: স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর বছর হওয়ায় গত ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে ৫০ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে উদযাপন শুরু হয়েছিল

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর বছর হওয়ায় আগামী ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবসে সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ৩১ বারের পরিবর্তে ৫০ বার তোপধ্বনি (কামান দাগা) করা হবে।

গত ১৭ আগস্ট মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাৃম্মেল হকের সভাপতিত্বে বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে জাতীয় কর্মসূচি প্রণয়ন ও বাস্তবায়নে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় অন্যান্য বছরের মতো ৩১ বার তোপধ্বনি করার সিদ্ধান্ত হয়।

কিন্তু গত ৪ অক্টোবর সেই কর্মসূচি সংশোধন করে সংশ্লিষ্টদের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। সেখানে বলা হয়, সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে ঢাকা এবং দেশের সব জেলা ও উপজেলায় ৫০ বার তোপধ্বনি করা হবে।

ঢাকায় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়/সশন্ত্র বাহিনী বিভাগ এবং জেলা ও উপজেলার ক্ষেত্রে জননিরাপত্তা বিভাগ, সুরক্ষাসেবা বিভাগ, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করবে বলে চিঠিতে জানানো হয়েছে।

ঐতিহ্যগতভাবে স্বাধীনতা দিবস ও বিজয় দিবসে ৩১ বার তোপধ্বনি করা হয়। তোপধ্বনি হচ্ছে প্রচলিত সামরিক সম্মান।

বাংলাদেশে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দেশের সূর্যসন্তানদের সম্মান জানানো হয়।

তবে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর বছর হওয়ায় গত ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে ৫০ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে উদযাপন শুরু হয়েছিল।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *