সড়ক নির্মাণের ১ মাসেই ধস

সারাবাংলা

রফিকুজ্জামান, চাটখিল থেকে:
নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার দশঘরিয়া দৌলতপুর-আথাকরা ক্বারী ইব্রাহিম সড়ক নির্মাণের ১ মাসের মাথায় দৌলতপুর ভূঁইয়া বাড়ির সামনের অংশ গাইডওয়ালসহ ধসে পড়েছে। ফলে সড়ক দিয়ে যানবাহন চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। সড়কটি দ্রুত সংস্কার না করা হলে যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। স্থানীয় ও উপজেলা প্রকৌশলী অফিস সূত্রে জানা যায়, মেসার্স মহিন এন্টারপ্রাইজ নামক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সড়কটির ১ হাজার ২৯০ মিটার সংস্কার কাজ ৫৩ লাখ ৯৮ হাজার টাকা ব্যয়ে সম্পন্ন করে। কিন্তু কাজ সম্পন্ন হওয়ার এক মাসের মধ্যে সড়কের দৌলতপুর ভূঁইয়া বাড়ির সামনে প্রায় ৪০ মিটার সড়ক গাইডওয়ালসহ খালের দিকে ধসে পড়েছে। যে কোনো সময়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এ ছাড়া সড়কটি নির্মাণে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের অভিযোগ করেছে স্থানীয়রা। জনসাধারণ মনে করে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করায় সড়কের বিভিন্ন অংশে কার্পেটিং ফাটল ধরেছে, ফলে যে কোনো সময় সড়কটি সম্পন্ন ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়বে। দৌলতপুর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত কলেজ শিক্ষক গোলাম কিবরিয়া ভূঁইয়া ও স্থানীয় ব্যবসায়ি মাহবুব মিয়া জানান, সড়কটি নির্মাণের সময়ও তারা নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার করার অভিযোগ করেছে, কিন্তু তাদের অভিযোগের কোনো মূল্যায়ন করা হয়নি।
এই ব্যাপারে উপজেলা প্রকৌশলী আবদুর রহিমের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি এই মাত্র খবর পেয়েছেন জানিয়ে বলেন, দ্রুত সড়কটি ধসে পড়া অংশ সংস্কারসহ কাজটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান পরিপূর্ণ সম্পন্ন না করা পর্যন্ত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানকে নির্মাণ ব্যয়ের কোনো বিল দেওয়া হবে না।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *