হাবিপ্রবিতে ১৭ জন শিক্ষকের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি চলছে

সারাবাংলা

নিজস্ব প্রতিবেদক: উপাচার্য্যরে অসৌজন্যমুলক আচরন এবং প্রশাসনিক কাজে অসহযোগিতার অভিযোগে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) ট্রেজারার, প্রক্টর ও সাবেক রেজিষ্ট্রাসহ বিভিন্ন প্রশাসনিক দায়িত্বে থাকা ১৭ জন শিক্ষক অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি পালন করছেন। বুধবার থেকে তারা কর্মবিরতি পালন করছেন। বৃহস্পতিবার রেজিষ্ট্রারের কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে।

আগামী রবিবারের মধ্যে উপাচার্য্য সহযোগিতায় এগিয়ে না আসলে কঠোর কর্মসুচি ঘোষনার হুশিয়ারী দিয়েছেন আন্দোলনরত শিক্ষকগন।

এদিকে, রেজিষ্ট্রার ডা. ফজলুল হক কর্মবিরতিতে অংশ নেয়ার পর উপাচার্য্য ডা. ফজলুল হককে রেজিষ্ট্রার পদ থেকে সরিয়ে দিয়ে বুধবার অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক রাজিব হোসেনকে রেজিষ্ট্রার পদে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ডা. ফজলুল হককে রেজিষ্ট্রার পদ থেকে সরিয়ে সংবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ সৃষ্টির পর প্রশাসনিক ভবন এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা কার্যক্রম এবং ছাত্রাবাস বন্ধ থাকলেও কিছু ছাত্র বৃহস্পতিবার ক্যাম্পাসে রেজিষ্ট্রারের অফিস কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে।

আন্দোলনরত শিক্ষকদের অভিযোগ শিক্ষকসহ কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগসহ বিভিন্ন প্রশাসনিক বিষয়ে মঙ্গলবার উপাচার্যের বাসভবনে দেখা করতে গেলে উপাচার্য্য তাদের সাক্ষাৎ না দিয়ে অসৌজন্যমুলক আচরন করেছেন। সেকারনে তারা কর্মবিরতি পালন করছেন।

উপাচর্য্য প্রফেসর ড. আবুল কাসেম শিক্ষকদের অভিযোগ সত্য নয় বলে দাবী করে জানান, তিনি প্রশাসনিক কাজের সব ফাইলে স্বাক্ষর করেছেন এবং অনলাইনে তাদের সাথে সার্বক্ষনিক কথা হচ্ছে। তারা মুলতঃ নিয়োগ দাবি নিয়ে এসব কর্মকান্ড শুরু করছে। যেখানে তাদের কোন না কোন স্বার্থ রয়েছে।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *