১১ লাখ টাকা নিয়ে লাপাত্তা প্রতারক

সারাবাংলা

নিজস্ব প্রতিবেদক :

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইমোতে রাজশাহীর এক তরুণীর সঙ্গে পরিচয় হয় সাইফুল খান শামীম ওরফে জুম্মন খানের (৪০)। ওই তরুণীর কাছে নিজেকে আমেরিকা প্রবাসী হিসেবে পরিচয় দেন। একই সঙ্গে বাংলাদেশে স্থায়ীভাবে বসবাসে আগ্রহ জানিয়ে তরুণীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলেন।

গত জুনে তরুণীকে বিয়ে করেন জুম্মন খান। তবে বিয়ের আগে ও পরে বিভিন্ন কায়দায় ওই তরুণী ও তার পরিবারের কাছ থেকে হাতিয়ে নেন ১১ লাখ ৩৯ হাজার ৫০০ টাকা। এরপর সুযোগ বুঝে লাপাত্ত হন জুম্মন। এরপরই তার প্রতারণার বিষয়টি টের পান ওই তরুণী ও তার পরিবারের সদস্যরা।

রোববার (২৭ ডিসেম্বর) রাজধানী ঢাকার মতিঝিল থানা এলাকা থেকে অভিযুক্ত জুম্মন খানকে গ্রেফতার করে নগরীর পবা থানা পুলিশ।

গ্রেফতার জুম্মন খান মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলার খাসেরহাট এলাকার আজিজুল খানের ছেলে। রাজধানীর মুগদা ১ নম্বর গলিতে ভাড়া বাসায় বসবাস করছিলেন তিনি।

প্রতারিত হয়ে গত ১৭ সেপ্টেম্বর জুম্মন খানের নামে পবা থানায় মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী তরুণী। গ্রেফতারের পর সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) তাকে আদালতে নিয়েছে পুলিশ।

নগরীর পবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে জুম্মনকে গ্রেফতরা করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি প্রতারণার বিষয়টি স্বীকার করেছেন। পরে তাকে আদালতে নেয়া হয়েছে। তাকে আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড চেয়েছে পুলিশ।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *