১২ মাসে ৩ হাজার ৯১ জন অপরাধী আটক

সারাবাংলা

রাজশাহী ব্যুরো:
রাজশাহী অঞ্চলেও বিজঙ্গীকরণ কার্যক্রম শুরু হতে পারে বলে জানিয়েছেন র‌্যাব-৫ রাজশাহীর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. আব্দুল মোত্তাকিম এসপিপি, পিএসসি, জি, আর্টিলারি। গতকাল বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে র‌্যাব-৫ এর সদর দফতরের সম্মেলন কক্ষে প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকদের সঙ্গে পরিচিতি ও মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন তিনি।
তিনি বলেন, র‌্যাব সদর দফতর বিজঙ্গীকরণ কার্যক্রম শুরু করেছে। এর ধারাবাহিকতায় রাজশাহী অঞ্চলেও এ কার্যক্রম শুরু হতে পারে। জঙ্গি সদস্যরা আত্মসমর্পণ করলে তাদের সুস্থ স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পুনর্বাসন করা হবে। এ কারণে জঙ্গী মনোভাবাপন্ন বা জঙ্গি সদস্যকে স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণের মাধ্যমে সুস্থ স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার আহ্বান জানাচ্ছি। এতে র‌্যাবের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করা হবে। মাদক ও চোরাকারবারীদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি ঘোষণা করা হয়েছে। এ ধারা অব্যাহত থাকবে।
সভায় তিনি সাংবাদিকদের অধিনায়ক জানান, ২০২০ সালের জানুয়ারি মাস থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত র‌্যাব-৫ এর অভিযানে ৫৫ জন জঙ্গি, ৯১ টি আগ্নেয়াস্ত্র, ২১৯ রাউন্ড গুলি, ৭৬ টি ম্যাগজিন, ৫৭ কেজি ৪০০ গ্রাম হেরোইন, ১১ কেজি ৬০০ গ্রাম আফিম, ৩৮৪৮৭ বোতল ফেনসিডিল, ১৮৯৯৯১ পিস ইয়াবা, ১৬৯৮ কেজি গাঁজা, ৯৬২৭ লিটার চোলাই মদ, ৪১৩ বোতল বিদেশি মদ, ৩৮৭ ক্যান বিয়ার উদ্ধারসহ অপহরণকারী, প্রতারক, সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি, ভেজাল ব্যবসায়ী, ভুয়া ডাক্তার, চোরাকারবারিসহ ৩ হাজার ৭১ জন অপরাধীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। র‌্যাব মাদক ও জঙ্গি দমনে সব সময় প্রস্তুত রয়েছে। র‌্যাবকে তথ্য ও পজিটিভ সংবাদ প্রকাশ করে সাহায্য করার জন্য সাংবাদিকদের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি। মতবিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন র‌্যাব-৫ রাজশাহীর সিপিএসসি কোম্পানি কমান্ডার এটিএম মাইনুল ইসলামসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।

মন্তব্য করুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *